Advertisement
Advertisement
Jammu-Kashmir

Jammu-Kashmir: রাতভর সেনা-জঙ্গি গুলিযুদ্ধ, নিকেশ LeT শীর্ষ কমান্ডার-সহ ২ সন্ত্রাসবাদী

নিহত লস্কর কমান্ডার ইশফাক দার ২০১৭ সাল থেকে সক্রিয় ছিল উপত্যকায়।

Top LeT commander among 2 terrorists killed in encounter at Shopian, Jammu and Kashmir | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:July 19, 2021 8:56 am
  • Updated:July 19, 2021 12:42 pm

মাসুদ আহমেদ, শ্রীনগর: রাতভর তল্লাশি, গুলিযুদ্ধ। সকালে যৌথবাহিনীর হাতে নিকেশ লস্কর-ই-তৈবার (LeT Terrorists) অন্যতম শীর্ষ কমান্ডার ইশফাক দার ওরফে আবু আক্রম। খতম হয়েছে আরও এক জঙ্গি। জম্মু-কাশ্মীরের (Jammu-Kashmir) সোপিয়ানে পুলিশ ও সিআরপিএফের যৌথ অভিযানে কুখ্যাত জঙ্গিকে খতম করা সেনার বড়সড় সাফল্য বলে মনে করা হচ্ছে। সেনা-জঙ্গি গুলির লড়াইয়ে সেনাবাহিনীর তরফে প্রাণহানির কোনও খবর নেই। টুইটে অপারেশনের বিস্তারিত জানিয়েছেন কাশ্মীর পুলিশের IGP বিজয় কুমার।

পুলিশ সূত্রে খবর, ইশফাক দার ওরফে আবু আক্রম ২০১৭ সাল থেকে কাশ্মীর উপত্যকায় জঙ্গি কার্যকলাপের সঙ্গে যুক্ত। লস্করের অন্যতম পদাধিকারী হিসেবে উপত্যকায় যুবকদের সন্ত্রাসের পথে টেনে আনার কাজ করছিল তলে তলে। সম্প্রতি সন্ত্রাসদমন অভিযানে নেমে তার খোঁজ করে সেনাবাহিনী। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে শনিবার থেকে তল্লাশি অভিযানে নামে রাষ্ট্রীয় রাইফেলস (RR)ও CRPF জওয়ানরা। খবর ছিল, সোপিয়ানে (Shopian) ঘাঁটি গেড়েছে সিদিক খান নামে এক জঙ্গি। তবে তাকে খুঁজতে গিয়ে ইশফাক দারের হদিশ মিলল। রবিবার রাতভর গুলির লড়াইয়ের পর সোমবার সকালে নিহত দুই জঙ্গির দেহ উদ্ধার হয়। তার মধ্যে থেকে লস্করের শীর্ষ কর্তা ইশফাককে শনাক্ত করে যৌথবাহিনী। এলাকা থেকে উদ্ধার হয়েছে প্রচুর বেআইনি অস্ত্রশস্ত্রও।

[আরও পড়ুন: টানাপোড়েনের অবসান, পাঞ্জাব প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি হলেন সিধু

সম্প্রতি কাশ্মীর উপত্যকায় হিজবুল, লস্কর জঙ্গি দমনে প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করছে সেনাবাহিনী। প্রায়শয়ই স্পর্শকাতর এলাকায় তল্লাশি অভিযান চালিয়ে জঙ্গিডেরা থেকে ধরপাকড়, গুলি বিনিময়, সংঘর্ষ চলছে। তাতে সেনা জওয়ান বা আধিকারিকরা শহিদ হলেও সন্ত্রাসবাদীদের নিকেশ করাই মূল লক্ষ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে এবং সে কাজে যথেষ্ট সাফল্যও মিলেছে। এভাবেই সম্প্রতি জম্মু-কাশ্মীরের সীমান্ত বরাবর পাক জঙ্গিদের শীর্ষ কর্তাদের গুলিযুদ্ধে ঘায়েল করা হয়েছে। এবার ইশফাক দারকে নিকেশ করে বড় সাফল্যের মুখ দেখল কাশ্মীর পুলিশ ও সেনাবাহিনী। তবে এই এলাকায় এখনও তল্লাশি চালাচ্ছে যৌথবাহিনী।

[আরও পড়ুন: ত্রিপুরায় আগামী বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির মুখ বিপ্লব দেবই, ইঙ্গিত প্রধানমন্ত্রীর]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ