BREAKING NEWS

১৫ মাঘ  ১৪২৯  সোমবার ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

মুখরক্ষা করতে এবার কৃষিঋণে ছাড়ের ঘোষণা পাঞ্জাবে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 20, 2017 8:57 am|    Updated: June 20, 2017 8:57 am

Towing MP line Punjab waives farmers' loan

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নির্বাচনী প্রতিশ্রুতির তালিকার প্রায় প্রথম দিকেই ছিল কৃষিঋণ মকুবের কথা। তবে এতদিন তা পূরণে খুব একটা উদ্যোগ দেখায়নি পাঞ্জাব। প্রথমে উত্তরপ্রদেশ, তারপর মহারাষ্ট্র। এবার হয়তো টনক নড়েছে অমরিন্দর সিং সরকারের। তাই দু লক্ষ টাকা পর্যন্ত কৃষিঋণ মকুবের কথা ঘোষণা করল পাঞ্জাব। ছোট ও মাঝারি কৃষকদের জন্য, বিশেষত যারা পাঁচ একর পর্যন্ত জমিতে চাষাবাদ করেছেন, তাদের জন্য কিছুটা স্বস্তির খবর।  সোমবার পাঞ্জাব বিধানসভায় এই ঘোষণা করেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং। রাজ্য সরকারের এই পদক্ষেপে উপকৃত হবেন প্রায় সাড়ে দশ লক্ষ কৃষক। এর মধ্যে আট দশমিক সাত পাঁচ লক্ষ কৃষকের প্রায় পাঁচ একর জমি নিয়ে কৃষি খামার আছে। এর সাথেই ছাড়ের আওতায় পড়ছে পাঞ্জাবের তফশিলি জাতি ও উপজাতি অধ্যুষিত এলাকার কৃষকরা। আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া শ্রেণিকেও এই তালিকাভুক্ত করা হয়েছে।

farmer2

পরিসংখ্যান বলছে, এবছরে কৃষিঋণ মকুবের পরিমাণ এত বছরের মধ্যে সবথেকে বেশি। তবে কিছু বিষয়ে ধোঁয়াশা রেখে দিয়েছে অমরিন্দর সিং সরকার। কৃষিঋণ মকুবের জেরে রাজস্ব খাতে কতটা চ্যালেঞ্জের মোকাবিলা করতে হবে সরকারকে, তার কোনও হিসেব মেলেনি। রাজ্য বাজেটে এজন্য কত বরাদ্দ করা হবে, আভাস মেলেনি তার পরিমাণেরও। তবে অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কৃষিঋণ মকুব করতে অন্তত চব্বিশ হাজার কোটি টাকা প্রয়োজন পাঞ্জাবের। উত্তরপ্রদেশ ও মহারাষ্ট্রের কৃষিঋণ মকুবের ঘোষণায় যথেষ্ট চাপে ছিল পাঞ্জাব। কারণ, এই দাবি উঠছিল বেশ কয়েকমাস ধরেই। তবে মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং-এর মতে তাঁর রাজ্যে অনেক বেশি পরিমাণ কৃষক উপকৃত হবেন এই ঘোষণায়। পাশাপাশি, কেন রাজ্যে কৃষক আত্মহত্যার পরিমাণ বাড়ছে, তার জন্য একটি তদম্ত কমিটি গঠন করা হবে বলেও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে