২২  শ্রাবণ  ১৪২৯  সোমবার ৮ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

দিল্লিতে কলেজ ছাত্রীর শ্লীলতাহানি, গ্রেপ্তার ত্রিপুরার প্রাক্তন মন্ত্রী

Published by: Paramita Paul |    Posted: June 30, 2022 9:03 am|    Updated: June 30, 2022 9:03 am

Tripura Former Minister arrested for alleging molestation College Student | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কলেজ ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে গ্রেপ্তার ত্রিপুরার (Tripura) প্রাক্তন মন্ত্রী। বুধবার দিল্লির কৌটিল্য মার্গ থানার পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তার করে। জামিন অযোগ্য ধারায় দায়ের হয়েছে মামলা। চলছে জিজ্ঞাসাবাদও।

ধৃত মেবারকুমার জমাতিয়া ত্রিপুরার আদিবাসী কল্যাণ বিষয়ক মন্ত্রী ছিলেন। আইপিএফটির (IPFT) বিধায়কও বটে। তাঁর বিরুদ্ধে দিল্লির ত্রিপুরা ভবনে এক কলেজ ছাত্রীর শ্লীলতাহানি এবং ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ দায়ের হয়েছে। বুধবার সকাল থেকে অভিযোগকারিনী এবং অভিযুক্ত প্রাক্তন মন্ত্রীকে দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করা করে কৌটিল্য মার্গ থানার পুলিশ। তারপর মেবারকুমারকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

[আরও পড়ুন: মুখ্যমন্ত্রীর ভাষণের শব্দে আপত্তি রাজ্যপালের, ‘নতুন নাটক’, পালটা কটাক্ষ তৃণমূলের]

পুলিশ সূত্রে খবর, আপাতত দিল্লির এক কলেজে পড়াশোনা করছেন অভিযোগকারিনী। তিনি আদপে ত্রিপুরার বাসিন্দা। সাময়িকভাবে দিল্লির ত্রিপুরা ভবনে থেকেই পড়াশোনা চালাচ্ছেন। অভিযোগ, ত্রিপুরা ভবনেই তাঁর শ্লীলতাহানি করা হয়। প্রাক্তন মন্ত্রীর কবল থেকে মুক্ত হয়েই থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ পাওয়ামাত্র মঙ্গলবার রাতে দিল্লির পুলিশ ত্রিপুরা ভবনে হানা দেয়। বুধবার সকালেও চলে দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ। তারপরই গ্রেপ্তার করা হয় অভিযুক্তকে। অভিযোগকারিনীকেও থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

উল্লেখ্য, দিল্লির (Delhi) ত্রিপুরা ভবনের যুগ্ম আবাসিক কমিশনার রঞ্জিত দাস ত্রিপুরা সরকারের সাধারণ প্রশাসন বিভাগের আন্ডার সেক্রেটারিকে চিঠি দিয়ে পুরো ঘটনাটি জানিয়েছেন। স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। জানা গিয়েছে, অভিযোগকারিনী বিজেপির (BJP) জনজাতি মোর্চার নেতা পাতাল কন্যা জমাতিয়ার ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত।

[আরও পড়ুন: বিজেপির পঞ্চায়েত ভোট পরিচালন কমিটিতে ‘ব্রাত্য’ লকেট-দিলীপ, সমন্বয়ের দায়িত্বে দেবশ্রী]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে