৫ মাঘ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৯ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‌কৃষক বিক্ষোভের মাঝেই আত্মহত্যা, যোগীরাজ্যে জলাশয় থেকে উদ্ধার চাষির দেহ

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: December 5, 2020 10:17 am|    Updated: December 5, 2020 10:17 am

An Images

ছবি:‌ প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ বিতর্কিত কৃষি আইনের প্রতিবাদে দেশজুড়ে চলছে কৃষি বিক্ষোভ। দেশের সমস্ত কৃষক সংগঠনই কেন্দ্রের আনা বিতর্কিত এই আইনের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে। এই আইন চাষিদের মৃত্যুর দিকেই ঠেলে দেবে। এমনটাই দাবি তাঁদের। এই পরিস্থিতিতে ফের সামনে এল কৃষকের আত্মহত্যার ঘটনা। তাও আবার যোগী আদিত্যনাথের (Yogi Adityanath) রাজ্য উত্তরপ্রদেশে। ঋণ শোধ করার চাপেই আত্মহত্যা করেছেন সুরেশ নামে ৪৫ বছর বয়সি ওই কৃষক।

জানা গিয়েছে, এটাহ (Etah) জেলার নিধৌলি কালান পুলিশ স্টেশনের অন্তর্গত ধুল্লা গ্রামের বাসিন্দা সুরেশ গত তিনদিন ধরে নিঁখোজ ছিলেন। এরপরই গত শুক্রবার স্থানীয় একটি খালে তাঁর মৃতদেহ ভাসতে দেখা যায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। তবে প্রাথমিক সন্দেহে পুলিশের অনুমান, আত্মহত্যাই করেছেন সুরেশ।

[আরও পড়ুন: উচ্চবর্ণের পদবি ব্যবহারের জের, গুজরাটে দলিত যুবককে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ]

পরিবারের লোকের অভিযোগ ঋণশোধের চাপেই এই কাজ করেছেন তিনি। জানা গিয়েছে, ব্যাংক থেকে তিনি ঋণ নিয়েছিলেন। অভিযোগ, সম্প্রতি ব্যাংকের এক কর্মচারী এসে তাঁকে ধমকান। পাশাপাশি ঋণশোধ করতে না পারলে তাঁর সম্পত্তি ব্যাংকের পক্ষ থেকে বাজেয়াপ্ত করা হবে বলেও হুমকি দেন। পরিবারের দাবি, এই চাপেই শেষপর্যন্ত আত্মহত্যার পথ বেছে নেন সুরেশ।

জানা গিয়েছে, কয়েক বছর আগে স্থানীয় ব্যাংক থেকে ৪–৫ লক্ষ টাকা ঋণ নিয়েছিলেন সুরেশ। কিন্তু চাষাবাদ ভাল না হওয়ায় সেই ঋণ তিনি শোধ করতে পারেননি। এরপরই ব্যাংক থেকে ঋণশোধের জন্য বারংবার তাগাদা দেওয়া হয়। সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত হওয়ার কথা শোনার পর থেকেই আরও চিন্তায় পড়ে যান। আর তাই ওই খালে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন তিনি। এমনটাই দাবি পরিবারের। এই ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে গোটা পরিবারে। অনেকেই আবার প্রশ্ন তুলছেন, ব্যাংক থেকে কোটি কোটি টাকা ঋণখেলাপ করেও মেহুল চোকসি–নীরব মোদিরা যখন দেশের বাইরে দিব্যি রয়েছেন, তখন বারবার চাষিদেরই কেন আত্মঘাতী হতে হচ্ছে?‌ এই ঘটনা কৃষক আন্দোলনের আঁচ আরও বাড়াবে বলে ধারণা ওয়াকিবহাল মহলের।

[আরও পড়ুন: জট কাটানোর প্রচেষ্টা জারি, আজ ফের আলোচনার টেবিলে আন্দোলনকারী কৃষক-কেন্দ্র]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement