BREAKING NEWS

১৫ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

মোদি-যোগীর নিন্দা রুখে প্রহৃত হিন্দু যুবক! সত্যিটা কী?

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 18, 2017 12:30 pm|    Updated: July 18, 2017 12:30 pm

UP ‘torture video’ given communal colour, probe ordered

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোরাঘুরি করছিল ছবি ও ভিডিওটি। এক হিন্দু ব্যক্তি বেধড়ক মার খাচ্ছেন কয়েকজন মুসলিম যুবকের হাতে। সঙ্গে যে ক্যাপশন ছিল তা দেখে অনেকেই চমকে উঠেছেন। ভাইরাল ভিডিওটির ব্যাখ্যা হিসেবে জানানো হয়েছিল, মোদি ও যোগীর নিন্দা রুখতে গিয়েই প্রহৃত হয়েছেন ওই যুবক।

কিন্তু সত্যিই কি তাই?

বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে ধর্ষণ, অভিযুক্ত বাল গঙ্গাধর তিলকের প্রপৌত্র ]

সাম্প্রদায়িকতার প্রসঙ্গ  থাকায় বহু মানুষই শেয়ার করেছেন এই ভিডিও। যুবকটি যে মার খেয়েছেন তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই। যারা তাঁকে মেরেছেন তাঁরা যে মুসলিম এ নিয়েও কোনও সংশয় নেই। কারওর হাতেই কোনও ব্যক্তির মার খাওয়া বাঞ্ছনীয় নয়। সেই হিসেবে ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়ার যথেষ্ট যৌক্তিকতা আছে। কিন্তু যে কারণ দেখানোর জন্য তা ভাইরাল হয়েছে শুধু সেটিই সত্যি নয় বলে জানা যাচ্ছে। এটিও গণপিটুনির ঘটনা বটে, তবে এর সঙ্গে মোদি ও যোগীর কোনও সম্পর্ক নেই। আসলে মোবাইল চুরিতে অভিযুক্ত হয়েই প্রহৃত হয়েছেন ওই যুবক। যদিও এভাবে আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়া গণপিটুনির ঘটনা কখনওই বাঞ্ছনীয় নয়।

ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় এতটাই ছড়িয়ে পড়ে যে নজরে যায় ক্রিকেটার আর পি সিংয়েরও। তিনি টুইট করে লেখেন, উত্তরপ্রদেশ প্রশাসন নিশ্চয়ই যথাযথ ব্যবস্থা নেবে। এরপরই উত্তরে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ জানিয়ে দেয়, ওই ব্যক্তি মোবাইল চুরিতে অভিযুক্ত। এবং তাঁকে যাঁরা মারধর করেছেন তাঁদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ফেক ভিডিও-র মাধ্যমে সাম্প্রদায়িকতা ছড়ানোর নমুনা কম নয়। সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গের বসিরহাটের অশান্ত পরিস্থিতির নাম করে গুজরাট ও বাংলাদেশের দাঙ্গার ছবিও ছড়ানো হয়েছে। এমনকী ভোজপুরি সিনেমার দৃশ্যও নারী নির্যাতনের ছবি হিসেবে প্রচার করা হয়েছে। ভুয়ো খবর ছড়ানো সোশ্যাল মিডিয়ায় মারাত্মক এক প্রবণতা হয়ে দেখা দিয়েছে। এবার তার শিকার হল উত্তরপ্রদেশও।

ভক্তদের হাতে দুধ পান করছে পাথরের মূর্তি, যোগীর রাজ্যে শোরগোল ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে