BREAKING NEWS

১৪  আষাঢ়  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কমদামে পিঁয়াজ বিক্রির জের, কংগ্রেস নেতার আঙুল কামড়ে দিল বিজেপি সমর্থক!

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: December 7, 2019 8:24 pm|    Updated: December 7, 2019 8:24 pm

Uttarakhand: Man chews off finger of Congress leader selling onions

ছবিটি প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজনীতির কারণে দেশজুড়েই কংগ্রেস ও বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে লড়াইয়ের অনেক ঘটনা শোনা গিয়েছে। মারামারির ফলে জখমও হয়েছেন অনেকে। কিন্তু, পিঁয়াজকে কেন্দ্র করে উভয়পক্ষের মারামারির ঘটনা আগে কোনওদিন শোনা যায়নি! এবার সেই ঘটনাই ঘটল উত্তরাখণ্ডের নৈনিতালে। সেখানকার এক কংগ্রেস নেতা ৩০ টাকা কিলো দরে পিঁয়াজ বিক্রি করছিলেন। সেই রাগে এক বিজেপি সমর্থক তাঁর আঙুল কামড়ে দেয় বলে অভিযোগ। পরে পুলিশ এসে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে যায়। যদিও ওই ব্যক্তির তাদের সঙ্গে কোনও যোগ নেই বলে দাবি করেছে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব।

[আরও পড়ুন: ফের উন্নাও, এবার দুধের শিশুকে যৌন নিগ্রহে ধৃত নাবালক]

কংগ্রেসের অভিযোগ, সম্প্রতি অতিরিক্ত মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ জানানোর জন্য অভিনব পন্থার সাহায্য নিয়েছিলেন স্থানীয় জেলা সভাপতি নন্দর মেহেরা। নৈনিতাল শহরে ৩০ টাকা কিলো দরে পিঁয়াজ বিক্রি করছিলেন। সেসময়
আচমকা ওইখানে হাজির হয়ে কংগ্রেস কর্মীদের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়ে বিজেপি সমর্থক মণীশ বিস্ত। তারপর নন্দন মেহেরার আঙুল কামড়ে ধরেন। সঙ্গে সঙ্গে তাকে নিরস্ত করার চেষ্টা করেন ওখানে উপস্থিত স্থানীয় কংগ্রেস
নেতা ও কর্মীরা। পুলিশেও খবর দেন। পরে তারা এসে ঘটনাস্থল থেকে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে।

এপ্রসঙ্গে আক্রান্ত কংগ্রেস নেতা নন্দন জানান, অতিরিক্ত মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ জানাতে ৩০ টাকা কিলো দরে পিঁয়াজ বিক্রি করছিলাম। আচমকা মণীশ বলে ওই বিজেপি সমর্থক এসে আমার হাতের একটি আঙুল কামড়ে ধরে। রক্ত বেরিয়ে গেলেও ছাড়ছিল না। এই বিষয় দেখে আমার সঙ্গে থাকা দলীয় কর্মীরা ওই ব্যক্তিকে নিরস্ত করার চেষ্টা করেন। পুলিশেও খবর দেন। পরে পুলিশ এসে ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে যায়।

[আরও পড়ুন: ‘প্রতিহিংসা থেকে কখনও ন্যায়বিচার হয় না’, তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য প্রধান বিচারপতির]

কংগ্রেস সেবাদলের ভাইস প্রেসিডেন্ট রমেশ গোস্বামী জানান, বুদ্ধপার্ক এলাকায় আমাদের লোকজন কম দামে পিঁয়াজ বিক্রি করছিল। সেসময় অভিযুক্ত ব্যক্তি সেখানে এসে স্লোগান দিতে থাকে। অকথ্য ভাষায় গালাগালি করার পাশাপাশি দলের মহিলা কর্মীদের সঙ্গে অশ্লীল আচরণ করছিল। ও নিশ্চয় একজন বিজেপি কর্মী। না হলে এই ধরনের ঘটনা ঘটাত না।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে