Advertisement
Advertisement
MCD Election

সারাদিন ঘুরেও খোঁজ মিলল না ভোটকেন্দ্রের! পুরনিগমের নির্বাচনে ক্ষুব্ধ দিল্লিবাসী

ভোট না দিয়েই ফিরে যেতে বাধ্য হয়েছেন অধিকাংশ ভোটার।

Voters furious as they are not allowed to vote in MCD Election | Sangbad Pratidin
Published by: Anwesha Adhikary
  • Posted:December 4, 2022 4:35 pm
  • Updated:December 4, 2022 4:35 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভোট দেওয়া দেশের নাগরিকদের সাংবিধানিক অধিকার। কিন্তু ভোট দিতে গিয়ে খাস রাজধানীতেই হেনস্তার শিকার সাধারণ মানুষ। সারাদিন ধরে ঘোরার পরেও তাঁরা জানতে পারেননি, ঠিক কোন জায়গায় গেলে ভোট দিতে পারবেন। পোলিং বুথের সন্ধানে হন্যে হয়ে ঘুরেছেন তাঁরা। রবিবার দিল্লি পুরনিগমের নির্বাচনে (MCD Election) এহেন ঘটনার সাক্ষী থাকলেন শহরের বাসিন্দারা। অনেক ক্ষেত্রেই দেখা গিয়েছে, পরিবারের একজন ভোট দিতে পারলেও অন্যদের নাম ভোটার তালিকায় পাওয়া যাচ্ছে না।

পশ্চিম প্যাটেল নগরে পোলিং বুথ খুঁজে না পাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। একাধিক ভোটার অভিযোগ করেছেন, একের পর এক বুথে পাঠানো হয়েছে তাঁদের। কিন্তু কোথাও ভোট দেওয়ার সুযোগ পাননি তাঁরা। বাধ্য হয়ে ফিরে আসতে হয়েছে তাঁদের। কালু রাম নামে এক ব্যক্তি জানিয়েছেন, “আমার সন্তানকে নিয়ে একঘণ্টারও বেশি সময় ধরে ঘুরছি। এখনও কোনও বুথে গিয়ে ভোট দেওয়ার সুযোগ হল না। অন্য বুথেও গিয়েছি। আমার স্ত্রী ভোট দিলেও আমি দিতে পারলাম না। কেউ জানে না কোথায় ভোট দিতে হবে।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: সরাববন্দি মঞ্জুর নয়! তাড়ি বিক্রির দাবিতে জনসভায় রোষের মুখে নীতীশ]

একই ধরনের অভিযোগ এনেছেন অন্য ভোটাররাও। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন বয়স্করাও। এক বৃদ্ধা বলেছেন, “আমাদের বয়স হয়েছে। এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় হেঁটে হেঁটে ঘুরে বেড়ানো সম্ভব না। তাই ভোট না দিয়েই ফিরে যেতে বাধ্য হলাম।” এক তরুণী ভোটার জানালেন, আগের নির্বাচনগুলির যাবতীয় তথ্য অ্যাপে পাওয়া যেত। কিন্তু পুরনিগমের নির্বাচন সম্পর্কে সঠিক তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না অ্যাপে। আধিকারিকদের গাফিলতিতে জীবনে প্রথমবার ভোট দেওয়ার অভিজ্ঞতা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। মন খারাপ করে বাড়ি ফিরে যেতে বাধ্য হয়েছেন তিনিও।

Advertisement

ভোটাররা তাঁদের নির্দিষ্ট পোলিং বুথ খুঁজে পাচ্ছেন না কেন? দিল্লি নির্বাচনের (Delhi Election) এক আধিকারিক জানিয়েছেন, নির্বাচনের আগে ভোটার তালিকা সঠিক ভাবে তৈরি করা হয়নি। ভোটার কার্ডের সঙ্গে আধার কার্ড লিংক করা হয়নি, ভোটার তালিকায় সঠিক ঠিকানা উল্লেখ করা হয়নি। একাধিক ভুলভ্রান্তির জেরেই ভোটের দিন সমস্যার মুখে পড়েছেন ভোটাররা। দিল্লি পুরনিগমের ২৫০টি ওয়ার্ডে রবিবার নির্বাচন হচ্ছে। আপ না বিজেপি- কার হাতে যাবে এই পুরনিগমের রাশ, আজ সেই রায় দেবেন দিল্লিবাসী।

[আরও পড়ুন: ভারতের জমি দখল করছে চিন, আর মোদি জিনপিংয়ের সঙ্গে হাত মেলাচ্ছেন! তোপ কংগ্রেসের]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ