BREAKING NEWS

১৬ মাঘ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

ভারতে নির্বাচনী প্রচারে ঘৃণাভাষণ নিয়ে সোচ্চার আমেরিকা, নিশানায় কি মোদি-শাহরা?

Published by: Biswadip Dey |    Posted: December 2, 2022 9:26 pm|    Updated: December 2, 2022 9:26 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বৃহস্পতিবার থেকে গুজরাটে বিধানসভা নির্বাচন শুরু হয়েছে। এবারের ভোটপ্রচারে গুজরাট (Gujarat) দাঙ্গা নিয়ে অমিত শাহর ‘উচিত শিক্ষা’ মন্তব্যে যথেষ্ট জলঘোলা হচ্ছে। এদিকে অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মাও এই প্রসঙ্গে বলেছেন, “হিন্দুরা দাঙ্গা করে না।” এই পরিস্থিতিতে এবার মুখ খুলল আমেরিকা। ভারতে এসেছেন আমেরিকার শীর্ষস্থানীয় কূটনীতিক এলিজাবেথ জোন্স। কারও নাম না করেও তিনি পরিষ্কার দাবি করেছেন, ভারতে নির্বাচনী প্রচারে যেভাবে সাম্প্রদায়িক ঘৃণা উসকে দেওয়া হচ্ছে সেই বিষয়টি বারবার তুলবে আমেরিকা। আলোচনা করতে চাইবে নয়াদিল্লির সঙ্গে।

এপ্রসঙ্গে বলতে গিয়ে এলিজাবেথ বলেছেন, ”এটাই এই ধরনের সম্পর্কের সুবিধা। নানা বিষয়ে আমরা আলোচনা চালিয়ে যেতে পারি। বিভিন্ন ইস্যু। কিছুতে আমরা একমত। কিছুতে নই।” এরপরই রাজনৈতিক প্রচারে সাম্প্রদায়িক মন্তব্যের প্রসঙ্গ তুলে তিনি বলেন, ”আমরা দীর্ঘদিন ধরেই এই নিয়ে কথা বলছি। এবং ভবিষ্যতেও বলব।”

[আরও পড়ুন: ‘হিন্দুরা দাঙ্গা করে না’, শাহর ‘উচিত শিক্ষা’ মন্তব্যে সমর্থন হিমন্তর]

সম্প্রতি গুজরাটে এসে এক জনসভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে ২০০২ সালের দাঙ্গা প্রসঙ্গে বলতে শোনা গিয়েছিল, ”২০০২ সালে বিজেপি (BJP) সরকার সমাজ বিরোধীদের উচিত শিক্ষা দিয়েছে। তারপরই অসামাজিক কাজকর্ম বন্ধ হয়ে গিয়েছে। আজ বিজেপির দৌলতেই গুজরাটে স্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।” তিনি কোনও বিশেষ সম্প্রদায়ের নাম না করলেও কড়া হিন্দুত্বের ধ্বজাধারী বিজেপির নেতা তিনি, তাই তাঁর ওই বক্তব্যের পিছনে টার্গেট যে মুসলিমরাই, তা পরিষ্কার বোঝা গিয়েছে বলেই দাবি ওয়াকিবহাল মহলের।

এদিকে হিমন্ত বিশ্বশর্মা এপ্রসঙ্গে বলেছেন, “হিন্দুরা সাধারণত দাঙ্গা করে না। ২০০২ সালের পর রাজ্যে শান্তি স্থাপন করতে একগুচ্ছ পদক্ষেপ করে গুজরাট সরকার। দাঙ্গাবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ফলে শান্তি বিরাজ করছে। এখন আর সেখানে কোনও কারফিউ হয় না। সস্প্রদায় হিসেবে জেহাদের মতো কোনও কিছুতে হিন্দুরা বিশ্বাসী নয়। ”

এই প্রসঙ্গে নানা বিতর্ক শুরু হওয়ার পরে এবার আমেরিকাকেও মুখ খুলতে দেখা গেল। যদি তাঁর কথামতো লাগাতার এই প্রসঙ্গে উত্থাপন করে চলে আমেরিকা, তাহলে যে কেন্দ্র অস্বস্তিতে পড়বে তাতে সন্দেহ নেই বলেই মনে করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: একদিনেই ১ কোটির চাকরির অফার ২৫ পড়ুয়াকে, নয়া রেকর্ড মাদ্রাজ আইআইটির]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে