BREAKING NEWS

২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  সোমবার ১৫ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কোথায় নরেন্দ্র মোদির বাবার চায়ের দোকান? জানেই না রেল!

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: August 25, 2020 6:54 pm|    Updated: August 25, 2020 6:54 pm

Western Railways Has No Record of PM Modi's Father's Tea Shop

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নিজের চা-ওয়ালা অতীতের কথা প্রায়ই শোনা যায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মুখে। ছোটবেলায় গুজরাটের ভাডনগর স্টেশনের বাইরে বাবার চায়ের দোকানে কাজ করার অভিজ্ঞতার গর্বের সঙ্গেই শোনান নমো। কিন্তু সেই দোকান সম্পর্কে কোনও তথ্যই নেই পশ্চিম রেলের কাছে। তাই তথ্য জানার আইনের আওতায় এক ব্যক্তির করা আবেদনে ইতি টেনে দিল সেন্ট্রাল ইনফরমেশন কমিশন।

[আরও পড়ুন: এবার পাকিস্তানি হ্যাকারদের নিশানায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ওয়েবসাইট]

বছর দুয়েক আগে ‘রাইট টু ইনফরমেশন’ বা তথ্য জানার আইনে ভাডনগর স্টেশন চত্বরে প্রধানমন্ত্রীর বাবা দামোদরদাস মোদির চায়ের দোকান সম্পর্কে তথ্য জানতে চেয়ে পশ্চিম রেলের সেন্ট্রাল পাবলিক ইনফরমেশন অফিসারের কাছে আবেদন জানান আইনজীবী তথা সমাজকর্মী পবন পারেখ। শুধু তাই নয়, হরিয়ানা আদালতের ওই আইনজীবী জানতে চান, কোন সালে ওই দোকানটির লাইসেন্স মঞ্জুর হয়। সেই সংক্রান্ত কোনও নথি পাওয়া যাবে কি না। কিন্তু ওই আধিকারিক দাবি করেন ২০২০ সালের ১৭ জুনের আগে এমন কোনও আবেদন তাঁর কাছে আসেনি। শেষমেশ দ্বিতীয়বার আবেদন পাওয়ার কথা স্বীকার করলেও তিনি জানিয়ে দেন, যে সময়ের তথ্য চাওয়া হয়েছে অনেক আগের। ওই সময়ের কোনও তথ্য রেলের আহমেদাবাদ ডিভিশনের কাছে নেই।

এই ঘটনার পরই সরাসরি সেন্ট্রাল ইনফরমেশন কমিশনে অ্যাপিল করেন সমাজকর্মী পবন পারেখ। তারপরই তাঁকে জানানো হয়, বিষয়টি অনেক দিন আগের। আহমেদাবাদ ডিভিশনের কাছে এই সংক্রান্ত কোনও রেকর্ড নেই। এ বছর ১৭ জুনের আগে পবন পারিকের কোনও অ্যাপিল তাঁর হাতে আসেনি জানিয়ে তাঁর দ্বিতীয় অ্যাপিলটি খারিজ করে দেন ইনফরমেশন কমিশনার অমিতা পাণ্ডবে। উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে তথ্য জানার আইনে করা এক আবেদনের ভিত্তিতে জানা যায়, ছোটবেলায় কোনও স্টেশনে বা ট্রেনে মোদি (Narendra Modi) চা বিক্রি করেছেন এমন কোনও তথ্য পাওয়া যায়নি।

[আরও পড়ুন: রাস্তায় ফেলে শিশুকে বেধড়ক মার দিল্লি পুলিশের কনস্টেবলের, ভিডিও ভাইরাল হতেই নিন্দার ঝড়]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে