BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

দিল্লি হিংসা মামলা: ১৫ জনের বিরুদ্ধে ১৭ হাজার পাতার চার্জশিট, কাঠগড়ায় হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপও

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: September 16, 2020 6:14 pm|    Updated: September 16, 2020 6:35 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সংশোধিত নাগরিত্ব আইন (CAA) -এর বিরোধিতার জন্য যে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপগুলি তৈরি হয়েছিল। সেগুলিকে ব্যবহার করেই দিল্লিতে অশান্তি ছড়ানো হয়েছিল। বুধবার দিল্লির কারকারডোমা আদালতে জমা দেওয়া ১৭ হাজার ৫০০ পাতার চার্জশিটে এই দাবিই করা হয়েছে পুলিশের স্পেশাল সেলের তরফে।

আদালত সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার সকালে ১৭ হাজার ৫০০ পাতার ওই চার্জশিটটি দুটি ট্রাঙ্কে করে আদালতে নিয়ে আসে দিল্লি পুলিশ। ওই চার্জশিটের ২৬০০টি পাতায় ১৫ জন অভিযুক্তের বিষয়ে বিশদে বর্ণনা করার পাশাপাশি বাকি পাতাগুলিতে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে হওয়া অশান্তির বিস্তারিত বিবরণ রয়েছে। পাশাপাশি দিল্লি পুলিশের তরফে আরও উল্লেখ করা হয়েছে যে এখনও পর্যন্ত এই বিষয়ে তদন্ত চলছে। এখনও পর্যন্ত যে অভিযুক্তদের নাম ওই চার্জশিটে নেই পরবর্তীকালে সাপ্লিমেন্টারি চার্জশিটে তাদের নাম ঢোকানো হবে।

[আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রীর ৭০তম জন্মদিনের প্রাক্কালে ৭০ কেজি লাড্ডু বিতরণ বিজেপি কর্মীদের]

ওই চার্জশিট আরও উল্লেখ করা হয়েছে, ষড়যন্ত্রকারীরা অশান্তি যুক্ত মানুষদের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ রাখত। সেলিমপুর ও জাফরাবাদে ভয়ানক অশান্তি ছড়ানোর জন্য দুটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ( WhatsApp Group) -কে কাজে লাগানোর প্রমাণও পাওয়া গিয়েছে। এখনও পর্যন্ত দু তরফে ২৫টি করে হোয়াটসগ্রুপ এই অশান্তি লাগানোর কাজে সাহায্য করেছিল বলে তদন্ত জানা গিয়েছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, আজকে আদালতে জমা দেওয়া চার্জশিট নাম নেই দিল্লি হিংসার (Delhi Violence) মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া জেএনইউয়ের ছাত্রনেতা উমর খালিদ ও সার্জিল ইমামের। অতিরিক্ত চার্জশিট তাঁদের নাম থাকবে বলে জানা গিয়েছে দিল্লি পুলিশ সূত্রে।

[আরও পড়ুন: অপেক্ষা শেষ, কেন্দ্র সবুজ সংকেত দিলেই রাশিয়ার করোনা টিকার ১০ কোটি ডোজ পাবে ভারত]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement