Advertisement
Advertisement
Bipin Rawat

CDS Bipin Rawat: রাওয়াত পরবর্তী সেনা সর্বাধিনায়ক কে? একনজরে দেখে নিন কার পাল্লা ভারী

কীসের ভিত্তিতে নির্বাচিত হবেন দেশের পরবর্তী CDS?

Who will be the next CDS in India, speculation is on | Sangbad Pratidin
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:December 9, 2021 7:58 pm
  • Updated:December 9, 2021 9:46 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভয়াবহ দুর্ঘটনায় আকস্মিকভাবে মৃত্যু হয়েছে দেশের প্রথম সেনা সর্বাধিনায়ক (CDS) বিপিন রাওয়াতের। বুধবার তামিলনাড়ুর কুন্নুরে সেনাবাহিনীর চপারে MI-17 V5 এ চড়ে ওয়েলিংটন কলেজের একটি অনুষ্ঠানে যাওয়ার পথে চপার ভেঙে পড়ায় সস্ত্রীক সিডিএস বিপিন রাওয়াত (Bipin Rawat)-সহ ১৩ জনের প্রাণহানি ঘটে। দেশের প্রতিরক্ষায় তিন বাহিনীর প্রধান জেনারেল রাওয়াতের এভাবে আচমকা চলে যাওয়া দেশের নিরাপত্তা বলয়ে নিঃসন্দেহে বড়সড় ধাক্কা। আর এই পরিস্থিতিতেই উঠছে এক অমোঘ প্রশ্ন। রাওয়াতের জায়গায় স্থলাভিষিক্ত হবেন কে? পরবর্তী সেনা সর্বাধিনায়কের দায়িত্ব অর্পিত হচ্ছে কার কাঁধে? 

সেনা সর্বাধিনায়ক পদটি আসলে কী? কারাই বা এই পদের যোগ্য? বিপিন রাওয়াতকে হারিয়ে এসব প্রশ্ন ফের সামনে চলে আসছে। ভারতের প্রতিরক্ষা ইতিহাসে আগে এই পদটি ছিল না। ২০১৯ সালে চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ বা সিডিএস পদটি তৈরি করে নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi) নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকার। আসলে, সেনা, বায়ুসেনা এবং নৌসেনা – এই তিন বাহিনীর মধ্যে সমন্বয় সাধন করে প্রতি মুহূর্তে দেশবাসীর সুরক্ষায় কড়া নজর দেওয়া অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। ভারতের একদিকে পাকিস্তান, অন্যদিকে চিন (China) সীমান্তের লাগাতার উসকানিতে সেসময় পরিস্থিতি এতটাই জটিল হয়ে উঠছিল যে তিন বাহিনীর মধ্যে যথাযথ যোগাযোগ স্থাপনের কাজটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছিল। এই অবস্থায় একাধিক বিতর্কের মুখে পড়েও একটি নতুন পদ তৈরি করে জেনারেল বিপিন রাওয়াতকে সেনা সর্বাধিনায়কের দায়িত্ব দেওয়া হয়। উত্তর-পূর্বাঞ্চল নিয়ে বিশেষজ্ঞ রাওয়াত অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে সেই দায়িত্ব সামলেছেন এতদিন। 

Advertisement

[আরও পড়ুন: CDS Bipin Rawat: বিপিন রাওয়াতের মৃত্যুতে ‘শত্রু দেশ’ পাকিস্তান থেকেও এল শোকবার্তা]

এখন তাঁর অবর্তমানে তেমন যোগ্য সেনা সর্বাধিনায়ক কে? ঘুরেফিরে যে ক’টি নাম উঠে আসছে, তার মধ্যে একজনই এগিয়ে। বাকিরা নানা কারণেই বাদের তালিকায় চলে যাচ্ছেন। এই মুহূর্তে দেশের তিন সেনাবাহিনীর তিন প্রধান – সেনাপ্রধান (Army) এমএম নারাভানে, বায়ুসেনা (Air Force) প্রধান ভি আর চৌধুরী, নৌসেনা (Navy) প্রধান অ্যাডমিরাল আর হরি। তিন বাহিনীর সমন্বয় সাধনে এই তিনজনের একজনকে বেছে নেওয়াই স্বাভাবিক। সেক্ষেত্রে দক্ষতা এবং অভিজ্ঞতা – দুই-ই বিবেচ্য বিষয়। সেবার অভিজ্ঞতার নিরিখে দু’জন এগিয়ে থাকলেও, বিপিন রাওয়াতই শেষপর্যন্ত নির্বাচিত হন। এনিয়ে বিতর্কও তৈরি হয়। তাতে তেমন আমল দেননি নরেন্দ্র মোদি-অমিত শাহরা।

Advertisement

[আরও পড়ুন: CDS Bipin Rawat: চিনের ‘পথের কাঁটা’ রাওয়াতের মৃত্যুর নেপথ্যে লালফৌজের ষড়যন্ত্র?]

এবার ফের সেই কঠিন নির্বাচনের পালা। রাওয়াত পরবর্তী দেশের প্রতিরক্ষার এই গুরু দায়িত্ব কার কাঁধে দিয়ে নিশ্চিন্ত হওয়া যায়, তা ভাবতে গিয়ে রাতের ঘুম উড়ছে সাউথ ব্লকের কর্তাদের। তিন বাহিনীর প্রধানের মধ্যে তুলনা করলে দেখা যাচ্ছে, সেনাপ্রধান মনোজ মুকুন্দ নারাভানে (MM Naravane) ২০১৯ সালের ১ সেপ্টেম্বর নতুন দায়িত্বে এসেছেন। সেদিক থেকে তিনি অভিজ্ঞ এবং কড়া হাতেই শত্রুদমন করেছেন। বায়ুসেনা প্রধান বিবেকরাম চৌধুরী আড়াই মাস আগেই দায়িত্ব নিয়েছেন। আর মাত্র এক সপ্তাহ আগে নতুন নৌ সেনা প্রধান হয়েছেন আর হরি। ফলে সবদিক থেকে এগিয়ে নারাভানেই। তা সত্ত্বেও আরও বেশ কিছু যোগ্যতা নির্ণায়ক পরীক্ষায় পাশ করলে তবেই রাওয়াতের উত্তরসূরি হওয়ার সুযোগ পাবেন বর্তমানের সেনাপ্রধান।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ