Winter Session of Parliament

মোদি-শাহ ব্যস্ত গুজরাট ভোটের প্রচারে, পিছোল সংসদের শীতকালীন অধিবেশন

শীতকালীন অধিবেশন চলবে ৭ থেকে ২৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

Winter Session of Parliament from 7 to 29the December 2022 | Sangbad Pratidin
Published by: Kishore Ghosh
  • Posted:November 19, 2022 2:32 pm
  • Updated:November 19, 2022 2:32 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সাধারণত সংসদের (Parliament) শীতকালীন অধিবেশন (Winter Session) শুরু হয় নভেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহে। কিন্তু এবার পিছোচ্ছে অধিবেশন। কেন্দ্রের সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ জোশী (Pralhad Joshi) জানিয়েছেন, এবার সংসদের শীতকালীন অধিবেশন শুরু হবে ৭ ডিসেম্বরে, চলবে ২৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত। বিরোধীদের বক্তব্য, গুজরাট বিধানসভা ভোটের (Gujarat Assembly Election) কারণে পিছিয়ে দেওয়া হল সংসদের শীতকালীন অধিবেশন। যেহেতু মোদি-শাহ-সহ অধিকাংশ নেতারা ভোটপ্রচারে ব্যস্ত।

উল্লেখ্য, গত বছর ২৯ নভেম্বরে শীতকালীন অধিবেশন শুরু হয়। তা চলেছিল ২৩ ডিসেম্বর অবধি। সংসদের রীতি মেনে নভেম্বর মাসের তৃতীয় সপ্তাহে যে এবার অধিবেশন বসবে না, সেই পূর্বাভাস দিয়েছিল বিরোধীরা। তারা অভিযোগ করেছিল, যেহেতু ১ এবং ৫ ডিসেম্বর গুজরাটে ভোট চলবে। সেই সূত্রে প্রচারে ব্যস্ত থাকতে হবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi) থেকে শুরু করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে (Amit Shah)। সেই কারণেই সংসদের শীতকালীন অধিবেশন পিছনো হবে।

[আরও পড়ুন: গুজরাটের শহরাঞ্চলে আপের বাড়বাড়ন্তের প্রভাব ভোটবাক্সে, দলীয় রিপোর্টে চিন্তায় মোদি-শাহরা]

কার্যত তাই হল। সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ জোশী জানিয়ে দিলেন, ৭ ডিসেম্বরে থেকে ২৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে সংসদের শীতকালীন অধিবেশন। এর ফলে মোট ১৭টি কাজের দিন পাওয়া যাবে। টুইট করে শীতকালীন অধিবেশনের দিনক্ষণ জানান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। উল্লেখ্য, শীতকালীন অধিবেশনে একাধিক বিল পাস করার অপেক্ষায় মোদি সরকার। অন্যদিকে বেশ কিছু প্রসঙ্গে কেন্দ্রের বিরোধিতায় সরব হবে বিরোধীরা। সাধারণত অধিবেশনের প্রথম দিন প্রয়াত সংসদ সদস্যদের শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা হয়। ৭ ডিসেম্বর সমস্ত দলের তরফে সমাজবাদী পার্টির নেতা মুলায়ম সিং যাদবকে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা হবে।

[আরও পড়ুন: নেতাজিই ‘প্রথম’ প্রধানমন্ত্রী, বার্তা দিতে উদ্যোগী কেন্দ্র, শুরু প্রক্রিয়া]

এদিকে আসন্ন গুজরাট নির্বাচনে আদিবাসী ভোট (Tribal Vote) নিয়ে চিন্তার ভাঁজ বিজেপির (BJP) কপালে। রাজ্যে তপসিলী উপজাতিদের জন্য ২৭টি আসন সংরক্ষিত। এছাড়াও ১৪টি জেলাতে আদিবাসী ভোট একপ্রকার নির্ণায়ক ভূমিকা পালন করে। আদিবাসীদের হাতে প্রায় ১৫ শতাংশ ভোট। অথচ রাজ্যে দীর্ঘদিন ধরে ক্ষমতায় থাকা সত্ত্বেও গুজরাটে বিজেপি কোনও আদিবাসী ‘মুখ’কে নেতা হিসেবে তুলে ধরতে পারেনি।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ