×

৯ চৈত্র  ১৪২৫  সোমবার ২৫ মার্চ ২০১৯   |   শুভ দোলযাত্রা।

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাকিস্তান হলে চিন নয় কেন? পুলওয়ামায় ভয়াবহ জঙ্গি হামলার পর ইসলামাবাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে ভারত৷ তাহলে জঙ্গি মাসুদ আজহারকে ক্রমাগত আড়াল করে যাওয়ার পরেও চিন রেহাই পাবে কেন? এক্ষেত্রেও একই পদক্ষেপ গ্রহণ করুক নয়াদিল্লি৷ শি জিনপিংয়ের দেশের থেকেও কেড়ে নেওয়া হোক ‘মোস্ট ফেভারড নেশন’-এর তকমা৷ সম্প্রতি এমনই দাবিতে সরব হয়েছে আরএসএস-এর শাখা সংগঠন স্বদেশি জাগরণ মঞ্চ৷

[নজির গড়লেন আজিম প্রেমজি, সেবামূলক কাজে দান করলেন ৫২ হাজার কোটি টাকা ]

সূত্রের খবর, এই দাবি জানিয়ে ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে একটি চিঠিও লিখেছে সংগঠনের প্রতিনিধিরা৷ তাঁদের বক্তব্য, ‘সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় ক্রমাগত ভারতের বিরোধিতা করে চলেছে চিন৷ মাসুদ আজহারের মতো একজন সন্ত্রাসবাদী নেতাকে বাঁচিয়ে বারবার ভারতের ক্ষতি করছে বেজিং৷ সেক্ষেত্রে ভারতেরও উচিত চিনের সঙ্গে সবরকমের সম্পর্ক ছিন্ন করা৷ পাকিস্তানের মতোই চিনের উপর থেকেও ‘মোস্ট ফেভারড নেশন’-এর তকমা কেড়ে নেওয়া উচিত ভারতের৷ এবং ভারতে সমস্ত রকমের চিনা দ্রব্য নিষিদ্ধ করা উচিত৷ অথবা শুল্ক বাড়িয়ে দেওয়া দরকার’৷ চিঠিতে তাঁরা আরও লিখেছেন, ‘এখন সময় এসেছে কূটনীতির পাশাপাশি অর্থনৈতিক ভাবেও চিনকে উচিত শিক্ষা দেওয়ার৷ তাঁদের বুঝিয়ে দেওয়া দরকার, ওই সিদ্ধান্তের ফলাফল কী হতে পারে’৷

[ভেড়া বলে প্যাকেটে গরুর মাংস, ক্ষতিপূরণ চাইলেন প্রবাসী হিন্দু]

স্বদেশি জাগরণ মঞ্চের নেতা অশ্বিনী মহাজনের দাবি, শীঘ্রই চিনের বিরুদ্ধে কঠোর যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে সরকারকে৷ পাকিস্তানের মতো চিন থেকে আমদানিকৃত পণ্যের উপরও শুক্ল বাড়ান উচিত৷ তিনি জানান, আমেরিকার সঙ্গে বাণিজ্যিক যুদ্ধে লিপ্ত হয়ে আগে থেকেই অর্থনৈতিক প্রতিবন্ধকতার মধ্যে রয়েছে চিন৷ এখনই তাদের উচিত শিক্ষা দেওয়ার সময় এসেছে৷ তাঁদের বুঝিয়ে দিতে হবে সন্ত্রাসবাদের সঙ্গ দিলে পরিণতি কী হতে পারে৷ স্বদেশি জাগরণ মঞ্চের তরফে জানানো হয়েছে, ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জহরলাল নেহেরু ‘হিন্দি-চিনি ভাই ভাই’ বললেও, সেকথার মর্যাদা রাখেনি বেজিং৷ ভারতের সঙ্গে ক্রমাগত বিশ্বাসঘাতকতা করে চলেছে চিন৷ ফলে পাকিস্তানের মতো এবার চিনের বিরুদ্ধেও ভারতের সরব হওয়া প্রয়োজন বলে সংগঠনের দাবি৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং