১ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের শিরোনামে বিজেপি শাসিত উত্তরপ্রদেশ। এক যুবককে রাস্তায় ফেলে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল দুই পুলিশকর্মীর বিরুদ্ধে। ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর থেকে অস্বস্তিতে যোগী প্রশাসন। ওই দুই পুলিশকর্মীকে আপাতত সাসপেন্ড করা হয়েছে। তদন্তের পরই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলেই জানানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ফের থাবা বাড়াল ‘ড্রাগন’, হাতাহাতিতে জড়াল ভারত-চিনের জওয়ানরা]

এক যুবক বাইকে চড়ে যাচ্ছিলেন। রাস্তায় প্রহরায় ছিলেন দুই পুলিশকর্মী। ওই বাইকচালক ট্রাফিক আইন মানেননি বলেই অভিযোগ তাঁদের। মাঝরাস্তায় তাঁকে দাঁড় করান ওই পুলিশকর্মীরা। কেড়ে নেওয়া হয় বাইকের চাবিও। তাতে রেগে যান ওই যুবক। বাইক থেকে নেমে পুলিশকর্মীদের সঙ্গে কথা বলতে শুরু করেন। মুহূর্তের মধ্যেই তা তর্কাতর্কির রূপ নেয়। এরপরই দেখা যায় ওই পুলিশকর্মীরা যুবককে চড় মারেন। মারের চোটে রাস্তায় লুটিয়ে পড়েন যুবক। এরপর তাঁকে ওই অবস্থাতেই আবারও মারধর করা হয়। রাস্তায় টানতে টানতে এভাবেই নিয়ে যাওয়া হয় যুবককে। অত্যাচারের সময় বারবারই যুবক জানতে চাইছিলেন মারধরের কারণ। তবে পুলিশকর্মীদের কাছ থেকে মেলেনি সদুত্তর।

[আরও পড়ুন: বিশ্বের সেরা ৩০০-এর তালিকায় নেই ভারতের কোনও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান]

আশেপাশের মানুষেরা এই গন্ডগোলের মধ্যে জড়াতে চাননি। তাই এগিয়ে আসেননি কেউই। তবে দূর থেকে ঘটনার ভিডিও করেছিলেন অনেকেই। সেই ভিডিওই শেয়ার করা হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। নজরে আসে রাজ্য প্রশাসনের। ভিডিওর সত্যতা যাচাইয়ের আগে ওই দুই পুলিশকর্মীকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। ঠিক কী কারণে এমন অমানবিকভাবে যুবককে মারধর করা হল, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং