২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

রোহিতের রেকর্ড গড়ার দিনে চর্চায় মনীশের অবিশ্বাস্য ক্যাচ, দেখুন ভিডিও

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: October 4, 2020 7:33 pm|    Updated: October 4, 2020 7:55 pm

An Images

মুম্বই ইন্ডিয়ান্স:‌ ২০ ওভারে ২০৮/‌৫ (ডি’‌কক ৬৭, সন্দীপ ২/‌৪১‌)‌
সানরাইজার্স হায়দরাবাদ:‌ ২০ ওভারে ১৭৪/‌৭ (‌ওয়ার্নার ৬০, বোল্ট ২/‌২৮)‌

মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ৩৪ রানে জয়ী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ দুবাইয়ে চলতি ‌আইপিএলে (IPL) এবার অনন্য রেকর্ড গড়লেন রোহিত শর্মা (Rohit Sharma)। আইপিএলে ১৯৩টি ম্যাচ খেলে ছুঁয়ে ফেললেন সুরেশ রায়নাকে (Suresh Raina)। টুর্নামেন্টে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ডের তালিকায় দু’‌নম্বরে উঠে এলেন রোহিত। আর রোহিতের রেকর্ড গড়ার দিনে ৩৪ রানে জয় পেল মুম্বই ইন্ডিয়ান্সও। অবশ্য সবকিছুকে ছাপিয়ে গেল মনীশ পাণ্ডের অবিশ্বাস্য ক্যাচ। যার ভিডিও কি না ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল।

[আরও পড়ুন: গোয়া পৌঁছেও দলের সঙ্গে যোগ দিতে পারছেন না এটিকে-মোহনবাগান কোচ হাবাস]

এদিন টস করতে নেমেই রেকর্ডটি গড়লেন মুম্বই (Mumbai Indians) অধিনায়ক রোহিত শর্মা। আইপিএলে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ড আগেই রায়নার কাছ থেকে নিজের নামে করে নিয়েছিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি (Mahendra Singh Dhoni)‌। এবার রায়নাকে ছুঁয়ে ফেললেন রোহিতও। প্রাক্তন জাতীয় দলের সতীর্থর মতোই হিটম্যানও এদিনের ম্যাচ মিলিয়ে ১৯৩টি ম্যাচ খেলার রেকর্ড গড়লেন। 

 

তবে ব্যাট হাতে কিন্তু সফল হলেন না। মাত্র ৬ রান করেই প্যাভিলিয়নে ফিরলেন। যদিও আরেক ওপেনার কুইন্টন ডি’‌কক দুর্দান্ত শুরু করে। ৩৯ বলে ৬৭ রান করলেন তিনি। রান পান সূর্যকুমার যাদব, ইশান কিষান, হার্দিক পাণ্ডিয়া থেকে শুরু করে পোলার্ড প্রত্যেকেই। তবে শেষ পাঁচ ওভারে হার্দিক, পোলার্ড এবং ক্রুনালের ঝোড়ো ব্যাটিংয়ের সৌজন্য ২০০ রানের গণ্ডি পেরোয় মুম্বই। নির্ধারিত ২০ ওভারে তাঁরা তোলে পাঁচ উইকেটে ২০৮ রান। তবে মুম্বইয়ের ইনিংসে ইষান কিশানকে দুর্ধর্ষ একটি ক্যাচ নিয়ে আউট করেন মনীশ। লং অনে ফিল্ডিংয়ের সময় ডানদিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে ক্যাচটি নেন। আর সমস্ত কিছু ছাপিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সেটাই এখন আলোচনার বিষয়। দেখুন সেই ভিডিও:‌

 

এদিকে, শারজার এই ছোট মাঠে ২০৯ রান তাড়া করা খুব কষ্টকর নয়। আর সানরাইজার্সের (Sunrisers Hyderabad) শুরুটাও দুই ওপেনার বেয়ারস্টো এবং ওয়ার্নার ভালই করেছিলেন। কিন্তু তাল কাটে পঞ্চম ওভারে। বোল্টের বলে ১৫ বলে ২৫ রান করে ফিরে যান বেয়ারস্টো। মনীশ পাণ্ডেও ৩০ রান করে প্যাটিনসনের শিকার হন। লড়াই করলেও রান তোলার গতি বাড়াতে গিয়ে আউট হয়ে যান ওয়ার্নারও। তবে আউট হওয়ার আগে ৪৪ বলে ৬০ রান করেন তিনি। তবে শেষপর্যন্ত মুম্বইয়ের বোলারদের অসাধারণ বোলিং এবং লোয়ার মিডল অর্ডারের ব্যর্থতায় ৩৪ রান দূরেই থেমে যায় হায়দরাবাদের ইনিংস। মুম্বইয়ের হয়ে দু’‌টি করে উইকেট নেন বুমরাহ, বোল্ট, প্যাটিনসন।

[আরও পড়ুন: দেবদূতের ব্যাটিং দেখে মুগ্ধ যুবরাজ, সরাসরি ছুঁড়লেন এই চ্যালেঞ্জ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement