২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: টানা ৬ ম্যাচে হারের পর জয়ের সরণিতে ফিরেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। কিন্তু তাতেও কাটছে না অশান্তির আবহ। লাগাতার হারের জেরে দলে অন্তর্ঘাতের তত্ত্ব উঠে এসেছিল। এবার ঘুরিয়ে সেই অন্তর্ঘাতের তত্ত্বে শিলমোহর দিলেন কেকেআর অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক। সরাসরি অন্তর্দ্বন্দ্ব নিয়ে কিছু না বললেও, নাইট অধিনায়ক যা বললেন তার সারমর্ম হল, দলে অশান্তির পরিবেশ আছে। সাজঘরে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ রয়েছে। কিন্তু, তিনি সাধ্যমতো চেষ্টা করে যাচ্ছেন অশান্তি দমন করার। ক্রিকেটারদের মধ্যে সদ্ভাব বজায় রাখার।

[আরও পড়ুন: ‘প্রজ্ঞার বিরুদ্ধে প্রমাণ ছিল, ওকে টিকিট দেওয়া ঠিক হয়নি’, বিজেপিকে তোপ জোটসঙ্গীর]

মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে জয়ের পর কেকেআরের অধিনায়ক বলেন, “সতীর্থদের মধ্যে স্বাস্থ্যকর পরিবেশ বজায় রাখাটা খুব জরুরি। দলের প্রত্যেক সদস্য যাতে কথা বলার সুযোগ পায়, সেটা নিশ্চিত করাটা খুব জরুরি। বিশেষ করে যখন দল খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে।” নাইট অধিনায়ক সাফ জানান, তিনি অন্তর্ঘাত বা অন্তর্দ্বন্দ্বের মতো বিষয়গুলি দল থেকে দূরে সরিয়ে রাখার সাধ্যমতো চেষ্টা করে চলেছেন। তিনি বলেন,” ক্রিকেট খুব উত্তেজনাময় খেলা। আর আইপিএলও খুব উত্তেজনাময় টুর্নামেন্ট। আমাদের প্রত্যেকের কথা ভাবতে হয়। প্রত্যেককে সুযোগ দিতে হয়, যাতে তাঁরা ভাল পারফর্ম করে। এই ধরনের পরিস্থিতি দলের মধ্যে অন্তর্ঘাত তৈরি হতে পারে। আমি জানি সেকথা। তাই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি যাতে এই ধরনের কিছু না হয়।”

[আরও পড়ুন: মোদি-শাহর বিরুদ্ধে কেন নিষ্ক্রিয় কমিশন? প্রশ্ন তুলে সুপ্রিম কোর্টে কংগ্রেস]

নাইট অধিনায়ক আরও বলেন, “সবকিছুর শেষে এটা একটা খেলা। প্রত্যেকেই নিজের সেরাটা দিতে চাই। অন্যদের সঙ্গে ভাল ব্যবহার করাটা খুব জরুরি। প্রত্যেকেই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। আমার মনে হয় প্রত্যেকেরই আমার সঙ্গে খেলাটা উপভোগ করা উচিত। এমনটা হওয়া উচিত নয় যে কেউ বলছে, ও খুব খারাপ খেলেছে, তাই আমরা হেরেছি।”উল্লেখ্য, লাগাতার হারের পর সংবাদমাধ্যমের সামনে মুখ খুলে টিম ম্যানেজমেন্টকে তুলোধোনা করেন আন্দ্রে রাসেল। বেঙ্গালুরুর বিরুদ্ধে স্লো ব্যাটিংয়ের জন্য নাম না করে রবীন উথাপ্পাকেও তোপ দাগেন রাসেল। ব্যাটিং অর্ডারে উপরে ব্যাট করার সুযোগ না দেওয়ার জন্য রাসেলের তোপের মুখে পড়ে কেকেআর টিম ম্যানেজমেন্টও। তখন থেকেই কেকেআর শিবিরে চূড়ান্ত অশান্তি চলছে বলে আঁচ করছিল ক্রিকেট মহল।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং