১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মালিকের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ, নির্বাসিত হতে পারে আইপিএলের এই দল

Published by: Sulaya Singha |    Posted: May 1, 2019 7:01 pm|    Updated: May 1, 2019 7:01 pm

IPL 2019: KXIP may be suspended over Ness Wadia's sentencing

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাদক রাখার অপরাধে বড়সড় শাস্তির মুখে পড়েছেন আইপিএল দল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের সহ-কর্ণধার নেস ওয়াদিয়া। বিখ্যাত শিল্পপতিকে প্রথমে দু’বছরের কারাদণ্ডের নির্দেশ দিয়েছে জাপানের একটি আদালত। তবে তাঁকে শাস্তি দিয়েই তা পাঁচ বছরের জন্য স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে কোনও গুরুতর অপরাধ না করলে শাস্তি হবে না তাঁর। তাঁর কাছে যে ২৫ গ্রাম ড্রাগ ছিল, জেরায় তা স্বীকার করে নেন নেস ওয়াদিয়া। তবে এও জানান, কেবলমাত্র ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্যই নিজের সঙ্গে মাদক রেখেছিলেন তিনি। কিন্তু নেসের এমন কাণ্ডে বিপাকে পড়তে পারে প্রীতি জিন্টার দল। এমনকী, অভিযোগ প্রমাণিত হলে নির্বাসিতও হতে পারে পাঞ্জাব ফ্র্যাঞ্চাইজি।

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপে পাকিস্তানের মতো জার্সি! চাপের মুখে রং বদলাতে বাধ্য হল বাংলাদেশ]

জাপানের হোক্কাইডো দ্বীপের নিউ চিতোসে বিমানবন্দর থেকে গ্রেপ্তার করা হয় ওয়াদিয়াকে। ২৫ গ্রাম ক্যানাবিস রেসিন-সহ ধরা পড়েন তিনি। এই অপরাধে তাঁর কারাদণ্ডের শাস্তি তো হলই, একইসঙ্গে তিনি সমস্যায় ফেলে দিলেন পাঞ্জাবকে। আইপিএলের অপারেশনাল আইন অনুযায়ী, কোনও টিম অফিসিয়াল এমন কোনও কাজ করতে পারবেন না যা তাঁর দল, লিগ, বিসিসিআই, মাঠ বা মাঠের বাইরে প্রভাব ফেলবে। আর ঠিক এই কারণেই নেস দোষী প্রমাণিত হলে নির্বাসনের মুখে পড়তে পারে তাঁর ফ্র্যাঞ্চাইজি।

এর আগে বলিউড অভিনেত্রী প্রীতি জিন্টার সঙ্গে নেসের প্রেম নিয়ে জল্পনা ছড়িয়েছিল। আইপিএলে একসঙ্গে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব দলটিও কেনেন প্রীতি এবং নেস। কিন্তু, ২০১৪ সালে নিজের বয়ফ্রেন্ডের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার মামলা করেন প্রীতি। অভিনেত্রীর করা সেই মামলা এখনও চলছে। এরই মধ্যে নয়া বিতর্কে নুসলি ওয়াদিয়ার ছেলে। জানা গিয়েছে, প্রথমে বিষয়টি তদন্তের জন্য কমিশনে পাঠানো হবে। তারপর তা ওম্বুডসম্যানের কাছে জমা পড়বে। কোনও ফ্র্যাঞ্চাইজির প্রতিনিধি যদি ১৪ নম্বর ক্লজের ২ নম্বর ধারা ভঙ্গ করেন, তবে সেই দলকে নির্বাসিত করতে পারেন ওম্বুডসম্যান। ঠিক যেমনটা হয়েছিল রাজস্থান ও চেন্নাইয়ের ক্ষেত্রে। আইপিএলের অপারেশনাল আইন ১.১-এর ৪ নম্বর ধারা লঙ্ঘন করায় শাস্তির মুখে পড়েছিল তারা। মালিকের নাম গড়াপেটার সঙ্গে জড়ানোয় আইপিএল থেকে নির্বাসিত হয়েছিল রাজস্থান রয়্যালস এবং চেন্নাই সুপার কিংস। দু’বছর নির্বাসনের পর ২০১৭ সালে টুর্নামেন্টে কামব্যাক করে দুটি দল। বিসিসিআই সূত্রে খবর, এবার পাঞ্জাবও তেমনই সমস্যায় পড়তে পারে।

[আরও পড়ুন: সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘বয়ফ্রেন্ড’-এর ছবি পোস্ট অজি ক্রিকেটারের, বিতর্ক তুঙ্গে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে