BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বিরাট ঝড়ে চাপা পড়ল রাসেল ম্যাজিক, প্লে-অফের রাস্তা কঠিন কেকেআরের

Published by: Sulaya Singha |    Posted: April 19, 2019 11:53 pm|    Updated: April 20, 2019 12:11 am

An Images

আরসিবি: ২১৩/৪ (কোহলি- ১০০, আলি- ৬৬)
কেকেআর: ২০৩/৫ (রানা-৮৫*, রাসেল-৬৫)

১০ রানে জয়ী আরসিবি

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চলতি টুর্নামেন্টে আরসিবির ঘরের মাঠে কেকেআরের ম্যাচের কথাটা মনে আছে? দু’শোরও বেশি রান করেও কীভাবে একজন ব্যাটসম্যানের অতিমানবীয় ইনিংসে প্রায় জেতা ম্যাচ হারতে হয়েছিল বিরাটদের? ইডেনের বাইশ গজেও অনেকটা তারই পুনরাবৃত্তি হল। তবে শুক্রবার আর দলকে জেতাতে পারলেন না আন্দ্রে রাসেল। বিরাটের অনবদ্য ইনিংসটি ম্যাচ উইনিং ঠিকই, তবে রাসেলকে নিঃসন্দেহে কুর্নিশ জানাতেই হয়।

২৭ মার্চ ২০১৭। ইডেনের বাইশ গজে ৫৯ রানে আল-আউট হয়ে গিয়েছিল বিরাট কোহলির আরসিবি। আইপিএলের সর্বনিম্ন স্কোর। ক্যাপ্টেনের নামের পাশে ছিল আস্ত একটা শূন্য। যে ম্যাচের স্মৃতি আজও তাড়া করে বেড়ায় ব্যাঙ্গালোরকে। যে ইনিংস মনে রাখতে চান না অধিনায়কও। কাট টু ১৯ এপ্রিল ২০১৯। নাইটদের ডেরায় ঝড় উঠল। বিরাট ঝড়। যে ঝড়ে তছনছ হয়ে গেল কিং খানের সোনালি শিবির। আইপিএলের পঞ্চম সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে রাজত্ব করলেন আরসিবি নেতা কোহলি। আর পুরনো স্মৃতি মুছে সম্মানরক্ষার লড়াইয়ে কেকেআরকে হারাল ব্য়াঙ্গালোর।

rcb

টানা ছ’ম্যাচ হারের পর একটা জয়। তারপর আবার হার। এমন অবস্থায় কোনও দলের মনোবল যে তলানিতে গিয়ে ঠ্যাকে, তা আর বলাই অপেক্ষা রাখে না। তার উপর ঘরের মাঠে এই কেকেআরের কাছেই নাস্তানাবুদ হতে হয়েছিল বিরাটদের। এমন পরিস্থিতিতে অ্যাওয়ে ম্যাচে ঘুরে দাঁড়ানো বেশ কঠিন। সেই অসাধ্যই সাধন করে দেখালেন গ্যারি কার্স্টেনের ছেলেরা।

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপে ভারতীয় ক্রিকেটারদের স্ত্রী ও বান্ধবীদের নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত নিল বোর্ড]

যদিও অলরাউন্ড পারফরম্যান্সেই যে দল জিতল, তা জোর গলায় বলা যাবে না। কারণ অনিশ্চয়তার কালো মেঘ কাটিয়ে দলে যোগ দেওয়া রাসেল একটা সময় যেভাবে বড় বড় শট হাঁকিয়ে রয়্যাল বোলারদের ধুয়ে দিচ্ছিলেন, তাতে মনে হয়েছিল ফের সেই অতিমানবীয় ইনিংস খেলে দলকে জেতাবেন ক্যারিবিয়ান তারকা। সমান তালে এগিয়ে যাচ্ছিলেন নীতিশ রানাও। এমন অবস্থাতেও যদি ফিল্ডার ব্যাটসম্যানের ক্যাচ মিস করেন, তাহলে জয়ের আশা ক্ষীণ হয় বইকী। রাসেল-রানার একটা করে ওভার বাউন্ডারির সঙ্গে সঙ্গে চওড়া হচ্ছিল নাইট সমর্থকদের মুখের হাসিও। তবে শেষ ওভারে সমর্থকদের উল্লাসে ইতি পড়ল।

KKR

ধোনির চেন্নাইয়ের পর আরসিবির কাছেও হেরে প্লে-অফের রাস্তা কঠিন করে তুললেন দীনেশ কার্তিকরা। প্লে-অফে পৌঁছতে বাকি পাঁচটার মধ্যে চারটে ম্যাচ জিততেই হবে তাঁদের। আর বিরাটরা? তাঁদের তো এখন শুধুই সম্মানরক্ষার লড়াই।

[আরও পড়ুন: চ্যাম্পিয়ন্স লিগে হারের জের, জুভেন্তাস ছাড়তে পারেন বিপর্যস্ত রোনাল্ডো!]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement