৫ ভাদ্র  ১৪২৬  শুক্রবার ২৩ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নয়া বিতর্কে বিখ্যাত শিল্পপতি তথা আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের সহ-মালিক নেস ওয়াদিয়া। সঙ্গে মাদক রাখার অভিযোগে বিজনেস টাইকুনকে দু’বছরের কারাদণ্ডের নির্দেশ দিয়েছে জাপানের একটি আদালত। অভিযোগ, তাঁর কাছে ড্রাগ পাওয়া গিয়েছে। একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে এমনটাই দাবি করা হয়েছে। সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, মার্চ মাসে ২৫ গ্রাম ক্যানাবিস রেসিন-সহ ধরা পড়েন নেস ওয়াদিয়া। তার পরেই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

[আরও পড়ুন: কেকেআর ম্যাচে নিয়মভঙ্গ করে মোটা অঙ্কের জরিমানা হল রোহিতের]

নেস ওয়াদিয়ার বিতর্কে জড়ানোর ঘটনা অবশ্য নতুন কিছু নয়। একসময় বলিউড অভিনেত্রী প্রীতি জিন্টার সঙ্গে তাঁর প্রেম নিয়ে জল্পনা ছড়িয়েছিল। আইপিএলে একসঙ্গে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব দলটিও কেনেন প্রীতি এবং নেস। কিন্তু, ২০১৪ সালে নিজের বয়ফ্রেন্ডের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার মামলা করেন প্রীতি। তার আগেই অবশ্য দু’পক্ষের তিক্ততা চরমে পৌঁছেছিল। প্রীতির করা সেই মামলা এখনও চলছে। এরই মধ্যে নয়া বিতর্কে নুসলি ওয়াদিয়ার ছেলে। অভিযোগ, জাপানের হোক্কাইডো দ্বীপের নিউ চিতোসি বিমানবন্দরে মাদক-সহ ধরা পড়েন পাওয়া যায় নেস ওয়াদিয়া।

[আরও পড়ুন: কেকেআরের অন্দরে অশান্তি! ঘুরিয়ে স্বীকার করে নিলেন কার্তিক]

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের সহ-মালিক গত মাসে জাপানের নর্দান আইল্যান্ড হোক্কাইডোতে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন। ফেরার সময় নিউ চিতোসি বিমানবন্দরে, নেস ওয়াদিয়ার জামার পকেট থেকে ২৫ গ্রাম ক্যানাবিস-রেসিন বাজেয়াপ্ত হয়। তখনই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। জাপানি পুলিশের জেরায় নেস ওয়াদিয়া নিজের অপরাধ কবুল করেন। তিনি জানান, ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য ওই ড্রাগ পকেটে রেখেছিলেন। নেসের জন্য স্বস্তির খবর, এখনই তাঁকে গ্রেপ্তার হতে হচ্ছে না। তাঁকে শাস্তি দিয়েই তা পাঁচ বছরের জন্য স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে। আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে নেস কোনও বিপজ্জনক অপরাধ না করল তাঁকে গ্রেপ্তার করা হবে না।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং