১৫ চৈত্র  ১৪২৬  রবিবার ২৯ মার্চ ২০২০ 

Advertisement

স্ত্রীর সাহায্যে তরুণীকে ধর্ষণ! পুলিশের জালে বাঘাযতীনের দম্পতি

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: February 17, 2020 8:05 pm|    Updated: February 17, 2020 8:08 pm

An Images

ছবিটি প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক দম্পতিকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে খাস কলকাতার বাঘাযতীন এলাকায়। অভিযোগ, স্ত্রীর মদতেই ওই যুবতীর উপর নির্যাতন চালায় অভিযুক্ত বিষ্ণুপদ মণ্ডল। বিষয়টি প্রকাশ্যে এলে নির্যাতিতাকে খুনের হুমকিও দেওয়া হয় বলে অভিযোগ।

জানা গিয়েছে, বাঘাযতীনের রবীন্দ্রপল্লির বাসিন্দা নির্যাতিতা ওই যুবতী। বাবার মৃত্যুর পর আর্থিক সমস্যা তৈরি হয় তাঁর। সেই সময় এলাকার একটি আশ্রমের পরিচিত একজনের মারফত বাঘাযতীনের ই-ব্লকের বাসিন্দা রণিতা মণ্ডল নামে এক মহিলার সঙ্গে পরিচয় হয় তাঁর। একটি চাকরি খুঁজে দেওয়ার জন্য রণিতার কাছে আবেদন জানায় নির্যাতিতা ওই তরুণী। রণিতা ও তার স্বামী বিষ্ণুপদের মাধ্যমে বেলেঘাটায় একটি ব্যাগের কারখানায় দৈনিক ২০০ টাকা বেতনে কাজে যোগও দেন ওই তরুণী। চাকরিতে যোগ দেওয়ার পরই কৃতজ্ঞতা জানাতে চলতি মাসের ৯ তারিখ রণিতার বাড়িতে যান নির্যাতিতা। সেখানে যাওয়ার কয়েকমুহূর্ত পরই তাঁকে জোর করে বিছানায় শুইয়ে দেয় রণিতার স্বামী বিষ্ণুপদ। অভিযোগ, স্ত্রীর সামনেই তরুণীকে ধর্ষণ করে বিষ্ণুপদ। 

[আরও পড়ুন: আলিপুর চিড়িয়াখানায় ‘ভ্যালেন্টিনা’ ও ২ সঙ্গী, নবজাতকের আবির্ভাবে খুশির হাওয়া]

প্রথমে ভয়ে কাউকে না জানালেও কয়েকদিন পর ভীতি কাটিয়ে ঘনিষ্ঠ একজনকে গোটা বিষয়টি জানান নির্যাতিতা। এরপর তাঁর পরামর্শেই পাটুলি থানায় অভিযোগ দায়ের করা হলে গ্রেপ্তার করা হয় ওই দম্পতিকে। পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃতদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬ (ধর্ষণ), ১১৪ (একসঙ্গে একাধিক ব্যক্তি একই অপরাধ ঘটানো) এবং ৫০৬ (ভয় দেখানো) ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। সোমবার আদালতে তোলা হবে ২৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত তাঁদের পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। কিন্তু কী কারণে এই পৈশাচিক এই ঘটনা ?  সে বিষয়টি এখনও স্পষ্ট নয় তদন্তকারীদের কাছে।

[আরও পড়ুন: বেলেঘাটা কাণ্ডে নয়া মোড়, মৃত শিশর বাবা-মায়ের DNA পরীক্ষার আবেদন মঞ্জুর শিয়ালদহ আদালতের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement