২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৮ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

একের পর এক ধারালো অস্ত্রের কোপ, দোলের রাতে খাস কলকাতায় খুন যুবক

Published by: Sayani Sen |    Posted: March 10, 2020 8:52 am|    Updated: March 10, 2020 8:56 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দোলের রাতে খাস কলকাতায় কুপিয়ে খুন করা হল এক যুবককে। শোভাবাজারের অবিনাশ কবিরাজ লেনের ঘটনায় শিউরে উঠছেন স্থানীয়রা। এই ঘটনায় নাম জড়িয়েছে এলাকারই দুই যুবকের। এখনও কাউকে গ্রেপ্তার কিংবা আটক করা যায়নি। বড়তলা থানার পুলিশ অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে।

প্রমোদ সাউ নামে নিহত ওই যুবক শোভাবাজারের অবিনাশ কবিরাজ লেনের দীর্ঘদিনের বাসিন্দা। দোলের রাতে বেশ খানিকটা মদ্যপান করেছিলেন প্রমোদ। বাড়ির কাছে রাস্তায় বসেছিলেন তিনি। অভিযোগ, সেই সময় শানু এবং সাল্টু নামে পাড়ারই দুই যুবক প্রমোদের কাছে আসে। দু’জনে কোনও বিষয়ে বচসায় জড়িয়ে পড়ে। হাতাহাতিও শুরু হয়ে যায়। প্রমোদের পরিবারের অভিযোগ, কথা কাটাকাটির সময় শানু এবং সাল্টু উত্তেজিত হয়ে প্রমোদকে বারবার ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করতে থাকে। সঙ্গে সঙ্গে অতিরিক্ত রক্তপাত হতে থাকে প্রমোদের। মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। তবে উদ্ধার করে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়ার আগেই মৃত্যু হয় ওই যুবকের। যদিও শানুর পরিবার প্রমোদের বাড়ির লোকের দাবি খারিজ করে দিয়েছে। তাদের বক্তব্য, শানু এবং প্রমোদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। তারপর প্রমোদ শানুকে ধাক্কা দেয়। শানু পড়ে যায়। সেই সময় নিজেই নিজের গলার কাছে আঘাত করতে থাকেন প্রমোদ। তাতেই মারা গিয়েছেন তিনি।

[আরও পড়ুন: চলন্ত ট্রেনে তরুণীকে লক্ষ্য করে ছোঁড়া হল প্রস্রাব! দোলের দিনে নিন্দনীয় ছবি পার্ক সার্কাসে]

কিন্তু কে এই শানু এবং সাল্টু? স্থানীয়দের দাবি, শানু এবং সাল্টু দু’জনেই বেআইনি পার্কিং করে টাকা রোজগার করে। এছাড়াও বিভিন্ন অসামাজিক কার্যকলাপের সঙ্গে যুক্ত থাকত তারা। এলাকায় ওই দুই যুবক ‘দাদাগিরি’ দেখাত বলেও অভিযোগ অনেকের। খুনের ঘটনার খবর পাওয়ামাত্রই বড়তলা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছয়। প্রমোদের দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। নিহতের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ ওই দুই যুবকের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে। তবে এখনও কাউকে আটক কিংবা গ্রেপ্তার করা যায়নি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement