Advertisement
Advertisement
Abhishek Banerjee

মোদির মঞ্চে থাকা বিজেপি নেতার কাছে কালো টাকা! ‘না খাউঙ্গা, খানে দুঙ্গা’ নিয়ে কটাক্ষ অভিষেকের

মোদির সঙ্গে মঞ্চ ভাগের পরই বিজেপির নেতার কাছে মিলল লক্ষ লক্ষ কালো টাকা।

Abhishek Banerjee attack Narendra Modi on black money issue
Published by: Amit Kumar Das
  • Posted:May 20, 2024 5:37 pm
  • Updated:May 21, 2024 1:53 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী মঞ্চে বলছেন, ‘না খাউঙ্গা, খানে দুঙ্গা।’ অথচ বাস্তবে দেখা যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে মঞ্চ ভাগ করা বিজেপির শীর্ষ নেতার কাছ থেকে উদ্ধার হচ্ছে অবৈধ ৩৫ লক্ষ টাকা। লোকসভা নির্বাচনের মাঝে এই ইস্যুতেই এবার খোদ প্রধানমন্ত্রীকে নিশানায় নিলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রশ্ন তুললেন, বিজেপির সাংগঠনিক জেলার সভাপতি সমিত মণ্ডল, যার কাছ থেকে ৩৫ লক্ষ কালো টাকা উদ্ধার হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নেবেন নরেন্দ্র মোদি?

পঞ্চমদফা নির্বাচনের প্রাক্কালে রবিবার ৩৫ লক্ষ টাকা উদ্ধার করা হয় বিজেপি নেতা সমিত মণ্ডলের থেকে। ঘটনার কয়েক ঘণ্টা আগের প্রধানমন্ত্রীর বঙ্গ সফরে খোদ নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে এক মঞ্চে দেখা গিয়েছিল এই নেতাকে। স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনায় শোরগোল শুরু হয় রাজ্যে। এই ইস্যুকে হাতিয়ার করেই সোশাল মিডিয়ায় খোদ নরেন্দ্র মোদিকে নিশানায় নেন অভিষেক। এক্স হ্যান্ডেলে তিনি লেখেন, ‘উনি মঞ্চে বলেন, না খায়ুঙ্গা, না খানে দুঙ্গা (খাব না খেতেও দেব না)। আর মঞ্চ থেকে নামলেই সেই ভাষণ হয়ে যায়, কালা পয়সা জমাউঙ্গা অউর জমানে দুঙ্গা (কালো টাকা জমাব ও জমাতে দেব)। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি কি তাঁর নিজের বক্তব্যে স্থির থাকবেন এবং বিজেপি নেতা সমিত মণ্ডলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন? গতকাল খড়গপুড়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে মঞ্চ ভাগ করার পরই যার কাছ থেকে ৩৫ লক্ষ টাকা উদ্ধার হল।’

Advertisement

[আরও পড়ুন: জওয়ানের চুমু কাণ্ডে নয়া মোড়, স্বামী দেখে ফেলাতেই ইউ-টার্ন তরুণীর! দাবি BSF-এর]

উল্লেখ্য, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে রবিবার গভীর রাতে খড়গপুর গ্ৰামীণ থানার সাহাচক এলাকায় একটি হোটেলে হানা দেয় বিশাল পুলিশবাহিনী। ৩০৫ নম্বর ঘরে তল্লাশি চালানো হয়। নগদ প্রায় ৩৫ লক্ষ টাকা উদ্ধার করেন তদন্তকারীরা। জানা গিয়েছে, ওই নগদ টাকা বিজেপির মেদিনীপুর সাংগঠনিক জেলার সভাপতি সমিত মণ্ডলের ব্যাগ থেকে পাওয়া গিয়েছে। ওই বিপুল পরিমাণ নগদ টাকা হিসাব বহির্ভূত বলেই খবর। এই ঘটনার ঠিক কয়েক ঘণ্টা আগে পুরুলিয়ায় বিজেপির মণ্ডল সভাপতির মোটরবাইক থেকে প্রায় সাড়ে পাঁচ লক্ষ টাকা বাজেয়াপ্ত করে নির্বাচন কমিশন।

[আরও পড়ুন: ‘চাকরি বিক্রির রেট বলেছি,’ অভিজিতের মমতা-ব্যাখ্যায় ‘ঝাঁটা’র দাওয়াই দেবাংশুর]

শুধু তাই নয়, ভোটের দিন গুগলিতে আর এক বিজেপি নেতার কাছ থেকে উদ্ধার হয় ২ লক্ষ টাকা। এভাবে একের পর এক বিজেপি নেতাদের কাছ থেকে টাকা উদ্ধারের ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই অস্বস্তিতে গেরুয়া শিবির। এরই মাঝে এই ইস্যুতে কড়া সুরে খোদ নরেন্দ্র মোদিকে আক্রমণ শানালেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ