BREAKING NEWS

১৪ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

ফের বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালের কর্মী আবাসনে করোনার হানা, নতুন করে আক্রান্ত ৪

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: May 31, 2020 2:35 pm|    Updated: May 31, 2020 2:45 pm

Again 4 infected in Corona virus in Beleghata ID Kormi Abason

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালের কর্মী আবাসনে করোনার হানা। নতুন করে আক্রান্ত হলেন ৪ জন। এদের মধ্যে একজন বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালের কর্মী বলে জানা যায়। সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় বাড়ছে উদ্বেগও।

একের পর এক বেলেঘাটা আইডি (Beleghata ID) হাসপাতালের কর্মীরা আক্রান্ত হচ্ছেন করোনা ভাইরাসে। আজ নতুন করে ৪ জনের শরীরে মিলল মারণ ভাইরাসের উপস্থিতি। আক্রান্তদের মধ্যে এক জন বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালের কর্মী ও বাকি তিনজন তাঁরই পরিবারের সদস্য বলে জানা যায়। কর্মীর আক্রান্ত হওয়ার খবর পেয়ে নড়চড়ে বসে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। সংক্রমণ রোধে কর্তৃপক্ষ দ্রুত সিদ্ধান্ত নেয় যে, আপাতত আবাসনের কর্মীরা হাসপাতালের কোনও ওয়ার্ডে প্রবেশ করবেন না। তাঁরা কাজ করা থেকে বিরত থাকবেন। আবাসনের বাকি কর্মীদের বাড়িতে থাকতেও অনুরোধ করা হয়েছে। হাসপাতালে কর্মীদের খামতি মেটাতে অস্থায়ী কর্মীদের দিয়ে কাজ চালানো হবে বলে জানায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ইতিমধ্যেই এই আবাসনকে কনটেনমেন্ট জোন (Contenment Zone) হিসেবেও চিহ্নিত করা হয়েছে।

[আরও  পড়ুন:ভাড়া বৃদ্ধির দাবিতে অনড় মালিকরা, কলকাতার রাস্তায় নামছে না বেসরকারি বাস]

এর আগেও এই আবাসনের ৭ জনের শরীরে মারণ ভাইরাসের সন্ধান মিলেছিল। সূত্রের খবর, বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালের কর্মী আবাসনে তখনই করোনা পরীক্ষা করা হয়। আক্রান্ত ৭ জনেরই রিপোর্টই পজিটিভ আসে। তাঁদেরকে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়৷ কনটেনমেন্ট জোন হিসেবে চিহ্নিত করায় এই আবাসনের ভিতরে প্রবেশ ও বাইরে যাওয়ায় বেশি কিছু নিয়ম লাগু করা হয়েছে। আবাসিকদের সেই নিয়ম পালন করতে এদিন ফের অনুরোধ করা হয়।

[আরও  পড়ুন:দূষণ থেকে কলকাতাকে বাঁচাতে হাতে সময় মাত্র চার মাস, সাড়ে ছয় কোটি গাছ বসাবে রাজ্য]

তবে আবাসিকদের অভিযোগ কনটেনমেন্ট জোন হওয়ায় আমফানের পর থেকেই আবাসনের ভিতরে প্রবেশ করছেন না স্বাস্থ্য কর্মীরা। ফলে এখনও যত্রতত্র ছড়িয়ে রয়েছে গাছের ডাল-পালা ও আবর্জনা। করোনা রোধে স্বচ্ছতা একটি মোক্ষম অস্ত্র। কিন্তু তা পালন না করায় সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে ক্ষোভপ্রকাশ করেন আবাসিকরা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে