৫ মাঘ  ১৪২৫  রবিবার ২০ জানুয়ারি ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফিরে দেখা ২০১৮ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

অর্ণব আইচ: চালকের ঘুমই কি প্রাণ কাড়ল যাত্রীর? সাতসকালে ইএম বাইপাসে দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন এক তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী। গুরুতর আহত চালক-সহ তিনজন। তাঁদের ভরতি করা হয়েছে একটি বেসরকারি হাসপাতালে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, আঘাত গুরুতর হলেও, আহতদের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল।

[ ফের শহরে অগ্নিকাণ্ড, নিউ মার্কেটে ভস্মীভূত চানাচুর কারখানা]

মৃতের নাম সুধীর চক্রবর্তী। বাড়ি, টালিগঞ্জের রিজেন্ট পার্কে। পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন, সল্টলেকের সেক্টর ফাইভে একটি তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থায় চাকরি করতেন সুধীর। বুধবার সকালে অ্যাপ ক্যাবে চেপে অফিসে যাচ্ছিলেন তিনি। গাড়িতে আরও তিনজন যাত্রী ছিলেন। ইএম বাইপাসের মেট্রোপলিটন মোড়ের কাছে গাড়ির নিয়ন্ত্রণ হারান চালক। প্রথমে গার্ডওয়াল ও পরে একটি বাতিস্তম্ভে সজোর ধাক্কা মারে গাড়িটি। গুরুতর আহত অবস্থায় গাড়ির চালক ও তিনজন যাত্রীকে নিয়ে যাওয়া হয় বাইপাস লাগোয়া একটি বেসরকারি হাসপাতালে। হাসপাতালে সুধীর চক্রবর্তীকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। বাকি দুই যাত্রী ও অ্যাপ ক্যাবের চালকের চিকিৎসা চলছে।

কিন্তু দুর্ঘটনা ঘটল কী করে? প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, সম্ভবত মঙ্গলবার রাতভর গাড়ি চালিয়েছিলেন ওই অ্যাপ ক্যাবের চালক। তাই বুধবার সকালে গাড়ি চালাতে চালাতে চোখে লেগে গিয়েছিল। তারজেরে দুর্ঘটনা ঘটেছে। সম্প্রতি শহরের কুড়িটি রাস্তাকে দুর্ঘটনাপ্রবণ বলে ঘোষণা করেছে ট্রাফিক পুলিশ। তালিকায় শীর্ষে ইএম বাইপাস। বস্তুত, গাড়ির বেপরোয়া গতির জন্য বেশ কয়েকটি দুর্ঘটনাও ঘটেছে ইএম বাইপাসে। কয়েকদিন আগেই বাইপাসে এক তরুণী ফ্যাশন ডিজাইনারের গাড়ির ধাক্কায় মারা যান এক পথচারী।

[আমহার্স্ট স্ট্রিটে পড়ুয়া বোঝাই পুলকারে হামলা ধর্মঘটীদের, আহত শিশুরা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং