BREAKING NEWS

১১ মাঘ  ১৪২৭  সোমবার ২৫ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের জন্য সুখবর! নতুন বছরের শুরুতেই মিলবে DA, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

Published by: Paramita Paul |    Posted: December 3, 2020 4:30 pm|    Updated: December 3, 2020 5:38 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের জন্য বড় ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Bannerjee)। নতুন বছরের শুরুতেই ৩ শতাংশ ডিএ (DA) মিলবে। এর দরুণ রাজ্যের ২ হাজার কোটি টাকা খরচ হবে।

এদিন  রাজ্য সরকারি কর্মী সংগঠনের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। নবান্নে সেই বৈঠকে তাঁদের অভাব-অভিযোগ শোনেন তিনি। এরপরই মহার্ঘভাতা দেওয়ার বিষয়টি জানিয়ে দেন। বলেন, “কোভিড পরিস্থিতি চলছে। রাজ্য সরকারের হাতে টাকা কম। তবু প্রতি বছরের মতো এবারও জানুয়ারি মাসে ৩ শতাংশ ডিএ পাবেন আপনারা। যেখান থেকেই হোক টাকা জোগার করব।” সূত্রের খবর, প্রতি বছর এই সময় রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা ২ শতাংশ ডিএ পান। এবার ১ শতাংশ বৃদ্ধি করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন : ভোটের মুখে কল্পতরু মুখ্যমন্ত্রী, অনলাইন ক্লাসের সুবিধায় ৯ লক্ষ পড়ুয়াকে দেওয়া হবে ট্যাব]

নির্বাচনের আগে মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণা যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ। বকেয়া মহার্ঘ ভাতা মেটানো ও ডিএ বৃদ্ধির দাবিতে রাজ্য সরকার বনাম সরকারি কর্মচারীদের একটি সংগঠনের মামলা চলছে। এমন আবহে ভোটের মুখে তাঁদের ক্ষতে প্রলেপ দিতেই মুখ্যমন্ত্রী এই ঘোষণা করলেন বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল  মহল।  

সকালে এক টুইটে কেন্দ্রীয় প্রতিষ্ঠানগুলির বেসরকারিকরণের প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিনের বৈঠকেও সে কথা তুললেন তিনি। মমতার অভিযোগ, “কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের কথা বলতে দেওয়া হয় না। শ্রমিকদের চুপ করিয়ে রাখা হচ্ছে। তাঁদের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত। যে কোনও সময় চাকরি কেড়ে নেওয়া হচ্ছে।” কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের তুলনায় রাজ্যের কর্মচারীরা ভাল আছেন বলে মত মমতার। এ প্রসঙ্গে মমতা বলেন, “আগেও আপনারা বলেছিলেন। আমরা পে-কমিশন করে (দিয়েছি)। সেজন্য আমাদের বছরে ১৪,০০০ কোটি টাকা বেশি লাগবে। সেটাও আমরা করে দিয়েছি।” কেন্দ্রের কাছে বকেয়া টাকার পরিমাণও তুলে ধরেন তিনি। 

[আরও পড়ুন : ‘দারিদ্র্য দূরীকরণে বাংলা প্রথম’, কর্মসংস্থানের খতিয়ান তুলে ধরে দাবি মুখ্যমন্ত্রীর]

বৈঠকে রাজনীতির কথাও উঠে আসে। কিন্তু সরকারের চেয়্যারে বসলে সকলেই তাঁর কাছে সমান বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। কর্মচারীদের তাঁর পরামর্শ, “ভোটের সময় রাজনীতি করুন, ঠিক আছে। কিন্তু কাজের সময় আপনি সরকারি কর্মচারী। সে কথা ভুলবেন না। এ প্রসঙ্গে তিনি নিজের কথাও টেনে আনেন। বলেন, “আমিও রাজনীতি করি। কিন্তু এই চেয়্যারে বসলে আমার কাছে সকলেই সমান।” 

কর্মচারী সংগঠনকে কেন্দ্রের জনবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামার ডাক দেন। তাঁদের হাতে লিখে পোস্টারিং করা, কেন্দ্রীয় সরকারি সংস্থার বঞ্চিত শ্রমিকদের নিয়ে আন্দোলনে নামার পরামর্শ দেন তিনি। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement