BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

একুশের আগে ফের শক্তিবৃদ্ধি তৃণমূলের, শাসক শিবিরে যোগ দিলেন কার্তিক দাস বাউল

Published by: Suparna Majumder |    Posted: August 20, 2020 9:05 am|    Updated: August 20, 2020 4:40 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আনুষ্ঠানিকভাবে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিলেন কার্তিক দাস বাউল (Kartik Das Baul)। বুধবার তাঁর হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee)। কার্তিক দাস বাউলের সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন লক্ষ্মণ দাস বাউলও।

[আরও পড়ুন:লকডাউনে মন খারাপ, মজার অডিও বানিয়ে শোনানো হবে অঙ্গনওয়াড়ির বাচ্চাদের]

গত ২১ জুলাই থেকেই কার্যত আগামী বিধানসভা নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। সেদিনই ভারচুয়াল সভা থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বার্তা দিয়েছিলেন, যাঁরা অন্য দল থেকে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিতে চান, তাঁদের স্বাগত জানানো হবে। তারপর থেকে অনেকেই তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন। কিছুদিন আগেই বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে ফিরেছেন দক্ষিণ দিনাজপুরের প্রভাবশালী নেতা বিপ্লব মিত্র। তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন বিশিষ্ট সমাজকর্মী চন্দ্রশেখর কুণ্ডুও। গত সোমবার তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন বিজেপির প্রাক্তন মুখপাত্র কৃশানু মিত্র। তারপরই বুধবার আনুষ্ঠানিকভাবে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেন কার্তিক দাস বাউল এবং লক্ষ্মণ দাস বাউল। তাঁদের সঙ্গেই এদিন ঘাসফুল শিবিরের সঙ্গে যুক্ত হন এগরার বিশিষ্ট চিকিৎসক বাদল অশ্রু ঘাটা এবং রানিগঞ্জের চেম্বার অফ কমার্সের সন্দীপ ভালোটিয়া। চারজনের এই যোগদান কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়ান-ও। প্রত্যেকেই সুরক্ষাবিধি মেনে মাস্ক পরে এসেছিলেন।

[আরও পড়ুন: ‘দ্বিতীয় তালিবানি শক্তি পশ্চিমবঙ্গে রাজ করছে’, বিশ্বভারতী কাণ্ডে তৃণমূলকে তোপ দিলীপের]

তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করার পর কার্তিক দাস বাউল জানান, দীর্ঘদিন ধরেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজনীতি ও সেবার মনোভাব তাঁর ভালো লাগে। জাতপাত তিনি বোঝেন না। লালনের গান গেয়ে দীর্ঘদিন ধরে মানুষের মনোরঞ্জন করেন। তাই বুঝেছেন পশ্চিমবঙ্গের সংস্কৃতিকে বাঁচাতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শক্ত হাত প্রয়োজন। সেই কারণেই তৃণমূলে যোগদান। আসন্ন নির্বাচনে আউশগ্রামে টিকিট পেলে ভালো হয় বলেও জানিয়েছেন বিশিষ্ট সংগীশিল্পী। তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানান, ধর্মকেন্দ্রিক ও হিংসার রাজনীতির বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে বাংলার চিরন্তন ঐতিহ্যকে রক্ষা করতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকে সাড়া দিয়ে সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষ রাজনীতির ময়দানে আসছেন।  

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement