BREAKING NEWS

৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বুধবার ২৫ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রাস্তায় নেমে ত্রাণ বিলি কেন? আইন ভাঙলে সব্যসাচীকে গ্রেপ্তারের হুঁশিয়ারি পুলিশের

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: March 31, 2020 12:58 pm|    Updated: March 31, 2020 12:58 pm

An Images

শুভময় মণ্ডল: দেশজুড়ে লকডাউনের জেরে অনেক দুস্থ মানুষ খাদ্যসংকটে ভুগছেন। অনেকেই অনাহারে রয়েছেন। তাই নিরন্নের মুখে অন্ন তুলে দিতে রাস্তায় নেমে পড়েছেন রাজনীতিক থেকে সমাজসেবীরা। কিন্তু সেই ত্রাণসামগ্রী বিলি করতে গিয়ে বিপাকে বিজেপি নেতা সব্যসাচী দত্ত। কেন লকডাউনের মধ্যে রাস্তায় বেরিয়েছেন তিনি, কেন আইন ভাঙছেন, তার জন্য মঙ্গলবার সকালে পুলিশ গেল বিধাননগরের প্রাক্তন মেয়রের বাড়িতে। এদিনও যদি তিনি ফের রাস্তায় নামেন তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিল পুলিশ। এর জেরে শাসকদলের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছে বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্ব।

বেশ কয়েকদিন ধরে রাস্তায় নেমে দুস্থদের মধ্যে ত্রাণসামগ্রী বিলি করছেন রাজারহাট-নিউটাউনের বিধায়ক সব্যসাচী দত্ত। এদিনও তাঁর কর্মসূচি ছিল। কিন্তু এদিন সাতসকালে পুলিশ বাড়িতে এসে বিজেপি নেতাকে হুঁশিয়ারি দিয়ে যায়। এমনটাই অভিযোগ সব্যসাচীর। বাইরে বেরলে গ্রেপ্তারও হতে পারেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। কিন্তু ত্রাণসামগ্রী বিলি থামাবেন না জানিয়ে দিয়েছেন সব্যসাচী। প্রয়োজনে বাড়ি থেকেই করবেন। সকালে সে প্রস্তুতিও নিয়ে ফেলেন তিনি। জানিয়েছেন, ‘পুলিশ যা করার করুক। আমি ত্রাণ বিলি করতে যাবই।’

[আরও পড়ুন: উপসর্গ নিয়ে জেনারেল ওয়ার্ডে করোনা আক্রান্ত, হাওড়া হাসপাতালে সংক্রমণের আশঙ্কা]

প্রসঙ্গত, সোমবারও তাঁর বাড়িতে যায় বিধাননগর কমিশনারেটের পুলিশ। জানিয়ে আসে, রাস্তায় নেমে আইন না ভাঙতে। এদিন সব্যসাচীর বাড়িতে যান রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি শাসকদলের দিকে রাজনীতি করার অভিযোগ তুলে বলেন, তৃণমূলের প্রত্যেক নেতা-মন্ত্রী রাস্তায় নেমে অসহায়, দুস্থ মানুষদের খাবার ও ত্রাণ বিলি করছেন। আর বিজেপির কেউ করলেই তাঁকে গ্রেপ্তারের ভয় দেখানো হচ্ছে। মানুষ খেতে পাচ্ছে না। খাবার নেই, টাকা নেই। বিজেপির কেউ সাহায্যও করতে পারবে না? তার জন্য অনুমতি লাগবে? প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।

এদিকে, পুলিশের বিরুদ্ধে অতি সক্রিয়তার অভিযোগ তুলে সব্যসাচীর বক্তব্য, ‘মুখ্যমন্ত্রীর অনুপ্রেরণায় আমি রাস্তায় নেমে ত্রাণ বিলি করলেও দোষ! আর এদিকে রাজ্যের মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় যখন বলছেন, বিজেপির নেতা-সাংসদদের রাস্তায় দেখা যাচ্ছে না। তাহলে পুলিশ আমাকে ত্রাণ বিলি করতে বারণ করছে কেন?’ পুলিশ সূত্রে খবর, বিজেপি নেতার কাছে এই কর্মসূচির অনুমতি নাকি ছিল না। তার পালটা সব্যসাচী বলেছেন, ‘আমি ফোন করলে ওনারা কেউ ধরেন না, হোয়াটসঅ্যাপ করলে রিপ্লাই দেন না। আমি যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তাঁরা গা করেন না। আর কীভাবে তাঁদের কাছে পৌঁছব, বলুন তো?’ তাঁর একটাই প্রশ্ন তৃণমূলের বিধায়ক-মন্ত্রীরা ত্রাণ বিলি করতে পারলে তিনি কেন পারবেন না। এবার পুলিশি হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে তিনি আদৌ ত্রাণসামগ্রী বিলি করবেন কিনা সেটাই দেখার।

[আরও পড়ুন: এবার করোনার বলি হাওড়ার মহিলা, রাজ্যে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement