১১ বৈশাখ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২৫ এপ্রিল ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: এপ্রিলের শেষে তৃণমূলকে ত্রিফলা হাতিয়ারে বিদ্ধ করতে চাইছে গেরুয়া শিবির৷ প্রচারে ঝড় তুলতে আবারও বাংলায় আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ৷ আসছেন বিজেপির হিন্দুত্ববাদের ম্যাসকট তথা উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ৷ আগামী ২৩ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হবে তৃতীয় দফার নির্বাচন৷ বালুরঘাট-সহ মালদহ ও মুর্শিদাবাদের লোকসভা আসনগুলিতে ওইদিন নির্বাচন হবে৷ কিন্তু তার আগে থেকেই দক্ষিণবঙ্গের অন্যান্য আসনগুলিতে প্রচার শুরু করে দিতে চাইছে গেরুয়া শিবির৷

[ আরও পড়ুন:  দিল্লির গদি দখলে ‘মিষ্টি’ লড়াই, কলকাতায় ক্ষীরের মোদি-মমতা ঘিরে উন্মাদনা  ]

রাজ্য বিজেপি সূত্রে খবর, আগামী ২০ এপ্রিল বুনিয়াদপুরে জনসভা করতে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এরপর ২৩ এপ্রিল আসানসোলে আসবেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানকার বিদায়ী সাংসদ তথা ওই আসনে বিজেপির এবারের প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়র সমর্থনে জনসভা করবেন তিনি৷ পরের দিন, অর্থাৎ ২৪ এপ্রিল তৃণমূলের অন্যতম ঘাঁটি বোলপুরে জনসভা করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ বীরভূম বা বোলপুর বলতেই মনে পরে দোর্দণ্ডপ্রতাপ তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডলের নাম৷ এবার তাঁর মাটিতে দাঁড়িয়েই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ শানাবেন নরেন্দ্র মোদি৷ প্রধানমন্ত্রী আসবেন শুনে স্বভাবতই উত্তেজিত জেলার বিজেপি নেতা-কর্মীরা৷ অনুব্রতর দাপট থাকা সত্ত্বেও গত কয়েক বছরে বীরভূমে নিজেদের ভীত যথেষ্ট শক্ত করেছে গেরুয়া শিবির৷ নির্বাচনের মরশুমে এবার প্রধানমন্ত্রীকে দিয়ে সেখানে জনসভা করিয়ে সেই ভীতকেই আরও মজবুত করতে চাইছে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব৷ এখানেই শেষ নয়, ওই একই দিনে রানাঘাটেও আরও একটি জনসভা করবেন নরেন্দ্র মোদি।

[ আরও পড়ুন: জল সংরক্ষণের সচেতনতায় সাইকেলে কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী অভিযান বাঙালি যুবকের ]

কেবল প্রধানমন্ত্রীই নন, বিজেপির গেরুয়া ধ্বজা ওড়াতে একই পথে রাজ্যে আসছেন দলের সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ৷ আগামী ২১ এপ্রিল কলকাতায় আসছেন তিনি। শহরে রাত্রিযাপন করে, ২২ এপ্রিল সকালে রাজারহাটে সাংবাদিক সম্মেলন করবেন তিনি। সূত্রের খবর, সেখানে কেন্দ্রের মোদি সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের সুফল তুলে ধরার পাশাপাশি, রাজ্য সরকারকে আক্রমণ শানাবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি৷ উত্তর দেবেন সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের৷ বিজেপি সূত্রের খবর, এরপর রাজ্যে একাধিক জনসভায় অংশগ্রহণ করবেন অমিত শাহ৷ কৃষ্ণনগর, বর্ধমান, সিউড়ি ও উলুবেড়িয়াতে জনসভা করবেন শাহ তিনি। ওইদিন রাজ্যের এক প্রান্তে যখন শাসকদলকে আক্রমণ শানাবেন বিজেপির সভাপতি, তখনই রাজ্যের অন্য প্রান্তে সেই আক্রমণের ঝাঁজকে আরও কয়েক গুণ বাড়িয়ে দেবেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ৷ ২২ এপ্রিল কাটোয়া ও বনগাঁতে দুটি জনসভা করবেন তিনি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং