BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

দোলের দিন ভোটারের মন গেরুয়ায় রাঙাতে মিঠাই-ঠান্ডাই হাতে ময়দানে বিজেপি

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: March 18, 2019 9:18 pm|    Updated: March 18, 2019 9:18 pm

BJP plans to communicate with voters on the day of Holi

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: হোলি কে দিন দিল খিল যা তে হ্যায়, রঙ্গো মে রং মিল যা তে হ্যায়…ফাগের রংয়ে মিলেমিশে এক হয়ে যাচ্ছে রাজনীতির রং। আম ভোটারের মনকে গেরুয়া রঙে রাঙাতে হোলির দিনে মিঠাই-ঠান্ডাই হাতে ময়দানে নামছে গেরুয়া শিবির। বৃহস্পতিবার দুপুরে মহল্লায় মহল্লায় গিয়ে বিজেপি নেতা-কর্মীরা সাধারণ মানুষের সঙ্গে হোলি খেলবেন। খাওয়াবেন লাড্ডু, প্যাঁড়া, রসগোল্লা। সঙ্গে কাজু-পেস্তা আর দুধের চমকদার শরবত, অর্থাৎ ঠান্ডাই। আর সন্ধ্যা থেকে রাত পর্যন্ত চলবে প্রবীণ ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে পায়ে আবির দিয়ে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন।

নিজের নামের পার্কেই বানান বিভ্রাট, রেহাই পেলেন না সত্যজিৎ রায়ও

নেতৃত্বের আশা, লোকসভা ভোটের মুখে হোলি উৎসব বিজেপির কাছে নিঃসন্দেহে বাড়তি পাওনা। কারণ, এই রঙের উৎসব হল আম জনতার উৎসব। এখানে কোনও ভেদাভেদ থাকে না। আট থেকে আশি, সকলেই মজে থাকেন খুশির আমেজে। কাজেই সেদিন কারও দরজায় কড়া নাড়লে গৃহকর্তা বিরক্ত হবেন না, তা তিনি যে দলেরই সমর্থক হোন না কেন। তাই লোকসভা নির্বাচনের আগে বাংলাতেও দোল এবং হোলির উৎসবকে পুরোপুরিভাবে জনসংযোগে কাজে লাগাতে মাঠে নেমে পড়ছে নরেন্দ্র মোদির দল।
শ্যামপুকুর ও জোড়াসাঁকো বিধানসভা এলাকায় হোলির দিন সকাল থেকে আবির খেলার আয়োজন করেছে বিজেপির দক্ষিণ কলকাতা জেলা কমিটি। দলের দক্ষিণ কলকাতা জেলার সভাপতি দীনেশ পাণ্ডে জানালেন, জোড়াসাঁকোর তারাসুন্দরী পার্কের সামনে দোল খেলা হবে। আমাদের দলের কর্মীরা তো বটেই এলাকার সাধারণ মানুষকে শামিল করা হবে। থাকবে পকোড়া ও ঠান্ডাই অর্থাৎ দুধ, মালাই আর পেস্তা দিয়ে তৈরি শরবত। দক্ষিণ কলকাতায় আবার ৬৩ নম্বর ওয়ার্ডের সদর স্ট্রিটে এবারও দোল উৎসব আর গান-বাজনার আয়োজন করেছেন বিজেপি নেতা-কর্মীরা। দক্ষিণ কলকাতা জেলা বিজেপির সহ-সভাপতি নীতিন প্যাটেল বললেন, সকলকে নিয়ে আবির খেলা, পুজা অনুষ্ঠান ও রসগোল্লা খাওয়া হবে।

কলকাতা থেকে উদ্ধার আরামবাগের অপহৃত ব্যবসায়ী, গ্রেপ্তার ১

কলকাতার পাশাপাশি বিভিন্ন জেলাতেও দোলের দিন জনসংযোগে নেমে ভোটারদের দরজায় দরজায় পৌঁছতে চাইছেন গেরুয়া ব্রিগেড। দোল বৃহস্পতিবার। ওইদিন হাওড়ার উলুবেড়িয়া এলাকায় বিভিন্ন জায়গায় হাট বসে। সেখানে বহু মানুষের সমাগম হয়। বিজেপির হাওড়া গ্রামীণ জেলার সভাপতি অনুপম মল্লিকের বক্তব্য, আবির আর মিষ্টি নিয়ে আমাদের দলের মহিলা কর্মীরা হাটে যাবে। সেখানে আমরা কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের প্রচারও করব। আর সন্ধ্যার সময় হাতে মিষ্টির প্যাকেট নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় প্রবীণ ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাদের পায়ে আবির দিয়ে প্রণাম করবে বিজেপি কর্মীরা। আবার পূর্ব মেদিনীপুরে দলের তমলুক সাংগঠনিক জেলার সাধারণ সম্পাদক নীলাঞ্জন অধিকারী জানালেন, নেতা-কর্মীরা যে যার এলাকায় স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে দোল উৎসবে শামিল হবেন।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে