৩১ চৈত্র  ১৪২৭  বুধবার ১৪ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ডুমুরজলার সভা থেকে ফেরার পথে আক্রান্ত বিজেপি কর্মীরা, বাঁকড়ায় ধুন্ধুমার, কাঠগড়ায় তৃণমূল

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: January 31, 2021 6:22 pm|    Updated: March 17, 2021 3:40 pm

An Images

অরিজিৎ গুপ্ত, হাওড়া:হাওড়ার (Howrah) ডুমুরজলায় বিজেপির মেগা জনসভা সেরে ফেরার পথে আক্রান্ত দলীয় কর্মী, সমর্থকরা। সলপের কাছে তাদের বাস ভাঙচুর, বাঁকড়ায় কর্মীদের উপর মারধরের অভিযোগে ধুন্ধুমার পরিস্থিতি হাওড়ায়। আহত হয়ে ৩ বিজেপি (BJP) কর্মী ভরতি এসএসকেএম হাসপাতালে। বিজেপির সমস্ত হোর্ডিং, ব্যানার খুলে তা ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগও উঠল। এই ঘটনায় স্বভাবতই অভিযোগের তির তৃণমূলের (TMC) দিকে। যদিও তা অস্বীকার করেছে শাসকদল।

রবিবার দুপুরে বিজেপির হাইভোল্টেজ জনসভা ছিল হাওড়ার ডুমুরজলা স্টেডিয়ামে। প্রধান বক্তা ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি। সশরীরে হাজির থাকতে না পেরে ভারচুয়ালি সভায় যোগ দেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah)। সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ও ছিলেন সভার অন্যতম হেভিওয়েট বক্তা। নির্দিষ্ট সময়ের কিছু পরে সভা শুরু হলেও বিকেলের মধ্যেই শেষ হয়ে যায়। প্রথমদিকে ডুমুরজলা স্টেডিয়ামে তেমন ভিড় না হলেও পরবর্তীতে জনসমাগম হয়।সভা সেরে দলের কর্মী, সমর্থকরা বাড়ি ফেরার সময়েই তাঁদের উপর অতর্কিতে চলে হামলা। বিজেপির অভিযোগ, বাঁকড়ার কাছে তৃণমূলের ঝান্ডা হাতে কয়েকজন আক্রমণ করে তাঁদের উপর। তাতে রঞ্জিৎ সিং, কুণাল সিং, রানা বিশাল সিং নামে ৩ জন জখম হয়েছেন। তাঁদের উদ্ধার করে এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ডুমুরজলায় জাতীয় সংগীতের ‘অপমান’ বিজেপির, ভিডিও পোস্ট করে কটাক্ষ অভিষেকের]

যদিও অভিযোগ অস্বীকার করে হাওড়া জেলা সভাপতি ভাস্কর ভট্টাচার্যর দাবি, ”এরকম কোনও ঘটনা ঘটেনি। শান্তিপূর্ণ মিছিল ছিল তৃণমূলের। সেটাই হয়েছে। বিজেপি মাঠ ভরাতে পারনি। পূর্ব মেদিনীপুর থেকে লোক ডেকে এনেছে। তারাই অশান্তি বাধিয়েছে। কেন্দ্রীয় নেতাদের নজরে আসতে এ ধরনের অশান্তি বাধিয়ে সমবেদনা আদায়ের চেষ্টা করছে।” বাঁকড়া ফাঁড়ির পুলিশের দাবি, এই ঘটনার সঙ্গে রাজনৈতিক কোনও যোগ নেই। রাস্তায় একটি বাইক এক পথচারীকে ধাক্কা দেওয়ার ঘটনা থেকে বচসা, হাতাহাতি ঘটেছে। আপাতত পরিস্থিতি স্বাভাবিক। তবে আক্রান্ত বিজেপি কর্মীদের দাবি, হামলাকারীদের হাতে তৃণমূলের ঝান্ডা ছিল। তাই তাদের পরিচয় আর গোপন করা যাচ্ছে না। এর আগেও পূর্ব মেদিনীপুরে শুভেন্দু অধিকারীর সভা থেকে ফেরার পথে কাঁথিতে একই পরিস্থিতির মুখে পড়তে হয়েছিল বিজেপি কর্মীদের। যার জেরে কার্যত অবরুদ্ধ হয়ে গিয়েছিল কাঁথি শহর। হাওড়াতেও প্রায় একই ঘটনা।

[আরও পড়ুন: ‘স্বাস্থ্যসাথী কার্ড কেন্দ্রের রাতের ঘুম উড়িয়েছে’, খোঁচা মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement