১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৪ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ঝাড়খণ্ডের সরকার ফেলার ষড়যন্ত্র! ফের কলকাতায় বিপুল টাকার হদিশ সিআইডির

Published by: Paramita Paul |    Posted: August 2, 2022 4:58 pm|    Updated: August 2, 2022 6:09 pm

CID raids hawala den in Kolkata, seize cash worth in lakhs | Sangbad Pratidin

অর্ণব আইচ: ফের কলকাতা থেকে উদ্ধার বিপুল নগদ টাকা। পার্থ-অর্পিতার দুই ফ্ল্যাটের পর এবার হাওয়ালা কারবারির অফিসে মিলল প্রচুর টাকা। ঝাড়খণ্ডের (Jharkhand) সরকার ফেলার ষড়যন্ত্রের তদন্তে নেমে লালবাজার চত্বরের বিকানের বিল্ডিং থেকে লক্ষাধিক টাকা উদ্ধার করল সিআইডি (CID)। 

মঙ্গলবার হেয়ার স্ট্রিট থানার বিকানের বিল্ডিংয়ে হাওয়ালা কারবারির অফিসে হানা দিয়েছিল সিআইডি। ঘণ্টা কয়েক তল্লাশির পর ওই দপ্তর থেকে প্রায় সাড়ে ৩ লক্ষ টাকা উদ্ধার করলেন তদন্তকারীরা। সঙ্গে মিলেছে বিপুল সংখ্যক রুপোর কয়েনও।

[আরও পড়ুন: ঘোষিত এশিয়া কাপের পূর্ণাঙ্গ সূচি, জেনে নিন কোন দিন মুখোমুখি হবে ভারত-পাকিস্তান?]

ঝাড়খণ্ডের তিন কংগ্রেস বিধায়ককে (Congress MLA) গ্রেপ্তারির পর জেরা করছে সিআইডি। জেরায় জানা গিয়েছে, পড়শি রাজ্য ঝাড়খণ্ডের জেএমএম-কংগ্রেস সরকার ফেলার জন্য বিজেপি ৫০ লক্ষ টাকা দিয়েছিল কংগ্রেসের তিন বিধায়ককে। অসম থেকে সেই টাকা এসেছিল বিকানের বিল্ডিংয়ের হাওয়ালা কারবারির মাধ্যমে। এদিন সেই কারবারির দপ্তরে হানা দিয়েছিল সিআইডি। তালা ভেঙে অফিসে ঢুকে দীর্ঘক্ষণ তল্লাশি চালিয়ে ৩ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা উদ্ধার করেছে তারা। মিলেছে ২২৫টি রুপোর কয়েনও। এছাড়াও প্রচুর হার্ড ডিস্ক এবং নথিও উদ্ধার হয়েছে।

সিআইডি এবং হেয়ার স্ট্রিট থানার পুলিশ আধিকারিকদের উপস্থিতিতে চলছিল তল্লাশি। টাকা এবং নথি উদ্ধারের পরই ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন সিআইডির পদস্থ আধিকারিকদের আরও একটি দল। সেখান থেকে আর কোনও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য মেলে কি না, তা খতিয়ে দেখবেন তাঁরা।

[আরও পড়ুন: সংসদে মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ভাষণ কাকলির, পাশে বসে দু’লাখি ব্যাগ লুকোলেন মহুয়া!]

এদিকে ঝাড়খণ্ডের সরকার ফেলায় বিজেপির ষড়যন্ত্র নিয়ে তৃণমূলের তরফে মুখ খুলেছেন তৃণমূলের রাজ্য সম্পাদক তথা মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। তাঁর কথায়, “মহারাষ্ট্রের সরকার ফেলার বিষয়ে অসমের নাম উঠে এসেছে। এক্ষেত্রেও অসমের নাম জড়াচ্ছে। সুকান্ত মজুমদার-শুভেন্দু অধিকারীরা কিছুদিন আগে এই ঘটনার ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন। এবার তাঁদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করা দরকার।”

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে