৯ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘ভুয়ো’ চিকিৎসকের হাতে রোগীর মৃত্যু, নার্সিংহোমের সঙ্গে বিবাদে মাথা ফাটল মৃতের পরিজনের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: July 27, 2020 9:47 am|    Updated: July 27, 2020 9:50 am

An Images

অঙ্কন: সুযোগ বন্দ্যোপাধ্যায়

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চিকিৎসার গাফিলতিতে রোগী মৃত্যুর অভিযোগকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার বাগুইহাটির একটি বেসরকারি হাসপাতালে। বচসায় জড়িয়ে পড়ে রোগীর পরিবার ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। দু’পক্ষের ঝামেলায় মাথা ফাটে রোগীর পরিবারের একজনের।

জানা গিয়েছে, বারাসতের (Barasat) বাসিন্দা নিখিলচন্দ্র রায় বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন। ব্রেনের চিকিৎসার জন্য ৩০ জুন তাঁকে ভরতি করা হয় বাগুইআটির (Baguiati) একটি বেসরকারি হাসপাতালে। প্রথমেই ওই হাসপাতালের তরফে তিন লক্ষ টাকা চাওয়া হয় রোগীর পরিবারের কাছে। এত টাকা দেওয়া সম্ভব হয়, পরিবারের তরফে তা জানানো হলে আড়াই হাজার টাকা দাবি করে হাসপাতাল। এরপর ১২ জুলাই মৃত্যু হয় নিখিলবাবুর। এরপরই চিকিৎসার গাফিলতির অভিযোগ তুলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দ্বারস্থ হয় রোগীর পরিবারের সদস্যরা। সেই সময়ই মৃতের পরিজনরা অভিযোগ করেন যে, যে ডাক্তার নিখিলবাবুর চিকিৎসা করছিলেন তিনি ভুয়ো। আগেও তিনি গ্রেপ্তার হয়েছে।

[আরও পড়ুন: করোনাতঙ্কে ছুঁলেন না পরিজন ও পড়শিরা, ঘরের মেঝেয় ৬ ঘণ্টা পড়ে থেকে মৃত্যু অসুস্থ বৃদ্ধার]

এরপরই রোগীর পরিবারের সঙ্গে বচসায় জড়ায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ক্রমেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি। সেই সময় ইট দিয়ে মৃতের পরিবারের এক সদস্যের মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় ইকো পার্ক থানার পুলিশ। দীর্ঘক্ষণ পর শান্ত হয় এলাকা।

[আরও পড়ুন: ‘হে ভারতবাসী, ভুলো না ওদের…’, কারগিল শহিদদের শ্রদ্ধাজ্ঞাপনে আবৃত্তি রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement