BREAKING NEWS

১০  আশ্বিন  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বাঙুর ইনস্টিটিউটের ঘটনায় মর্মাহত, স্বাস্থ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে বললেন মমতা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 10, 2018 3:27 pm|    Updated: May 10, 2018 8:17 pm

CM Mamata Banerjee expresses grief over Bangur incident

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাঙুর ইনস্টিটিউটের ঘটনার চারদিন পর নিজের মত পেশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ ঘটনা নিয়েও তিনি মর্মাহত বলে বৃহস্পতিবার সাফ জানিয়ে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ কলকাতার নজরুল মঞ্চে স্বাস্থ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘বাঙুরের ঘটনায় আমি মর্মাহত৷’’

গত রবিবার খাস কলকাতায় সরকারি হাসপাতালে দুর্নীতির পর্দাফাঁস করে ভবানীপুর থানার পুলিশ৷ রোগীর পরিবারের লোকদের মারধর, শ্লীলতাহানির অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয় বাঙুর ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সের স্টোরকিপার পলাশ দত্তকে৷ অভিযোগ, রোগীর শরীরে ইমপ্ল্যান্ট ডিভাইস বসানো সংক্রান্ত ফাইল আটকে রেখে টাকা চান অভিযুক্ত। রাজি না হওয়ার রোগীর পরিবারের লোকদের মারধর করেন সরকারি হাসপাতালের স্টোরকিপার। সরকারি হাসপাতালের স্টোরকিপারের এহেন কাণ্ড প্রকাশ্যে আসতেই রাজ্য জুড়ে তৈরি হয় বিতর্ক৷ অভিযুক্ত হাসপাতাল কর্মীকে গ্রেপ্তারের পর এই প্রথম মুখ খোলেন তিনি৷

বাঙুরের ঘটনায় প্রতিক্রিয়া জানানোর পাশাপাশি, রাজ্যের স্বাস্থ্যব্যবস্থা নিয়েও এদিন মন্তব্য করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ কিডনি প্রতিস্থাপন হোক বা হার্টের অস্ত্রোপচার, বাংলার সরকারি হাসপাতালে সমস্ত চিকিৎসাই বিনামূল্যে পাওয়া যায়। বিনা পয়সায় চিকিৎসার সুযোগ যাতে রাজ্যের মানুষই বেশি করে পান এবার তা নিশ্চিত করতে বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর বক্তব্য, প্রতিবেশী রাজ্য ও প্রতিবেশী দেশগুলি থেকে যাঁরা পশ্চিমবঙ্গে বিনা পয়সায় চিকিৎসার সুযোগ নিচ্ছেন তাঁদের জন্য আলাদা পদ্ধতি করা হোক। স্বাস্থ্য দপ্তরকে এই বিষয়ে পরিচয়পত্র চালুর নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার কলকাতার নজরুল মঞ্চে স্বাস্থ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে এই নির্দেশ দেন মমতা। প্রতিবেশি রাজ্য ঝাড়খণ্ড, বিহার, ওড়িশা, অসম, ত্রিপুরা, সিকিম-সহ বহু রাজ্যের মানুষ পশ্চিমবঙ্গে বিনা পয়সায় চিকিৎসার সুযোগ নেন। প্রতিবেশী দেশ নেপাল, ভুটান ও বাংলাদেশ থেকেও অগুনতি মানুষ এখানে আসেন। রাজ্য সরকারের ঘোষিত নীতি অনুযায়ি সবাই বিনা পয়সার চিকিৎসা পরিষেবা পান। ন্যায্যমূল্যের দোকান থেকে সবাই ভরতুকিতে ওষুধ পান। মুখ্যমন্ত্রী এদিন বলেন, “ভিন রাজ্যের এবং ভিন দেশের মানুষদেরও আমরা চিকিৎসা পরিষেবা দেব। কিন্তু এই কাজে একটা পরিচয়পত্র চালু হোক। তাঁদের জন্য অন্য পদ্ধতি অনুসরণ করা হবে।”

স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে খবর, দ্রুত এই বিষয়ে পদক্ষেপ করা হবে। ডাক্তারিতে সর্বভারতীয় প্রবেশিকা (নিট)-এ বাংলা ভাষার পরীক্ষার্থীদের প্রতি বঞ্চনা নিয়ে এদিনও মুখ খোলেন মমতা। রাজ্যে মেডিক্যালে প্রবেশিকা ফের চালুর দাবিতে প্রতিবাদ হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে