১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘বিজেপি মন্দির-রাজনীতি করছে’, হোলি মিলন উৎসবে তীব্র সমালোচনা মুখ্যমন্ত্রীর

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: March 28, 2019 8:10 pm|    Updated: March 28, 2019 8:10 pm

CM Mamata Bannerjee slams BJP at the programme Holi Milan Utsab

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সব রং মিলে যায় উৎসবের রঙে৷ সেখানে কোনও বিভেদ হয় না৷ বৃহস্পতিবার গীতাঞ্জলি স্টেডিয়ামে হোলি মিলন উৎসবে যোগ দিয়ে এভাবেই সম্প্রীতির বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তবে, এদিন তাঁর বক্তব্যের সিংহভাগই ছিল বিজেপি বিরোধিতা৷ বিজেপি ভোট রাজনীতি করে বলে তীব্র সমালোচনায় মুখর হলেন মুখ্যমন্ত্রী৷

      [ আরও  পড়ুন :   ডাক্তারি ছাত্রের রহস্যমৃত্যু ঘিরে প্রশ্ন, অবসাদে আত্মহত্যা বলে প্রাথমিক অনুমান]

তৃণমূল সুপ্রিমোর অভিযোগ, বিজেপি রাজনীতির রং দিয়ে ধর্মে ধর্মে ভেদাভেদ তৈরি করার চেষ্টা করছে৷ রাম-নাম নিয়ে রাজনীতি চলছে৷ বাংলায় অশান্তি করে দাঙ্গা পরিস্থিতি তৈরির চেষ্টা করা হচ্ছে৷ এসব অভিযোগ তুলে তাঁর প্রত্যয়ী সুর, সমস্ত বিভেদ, অশান্তির চেষ্টা রুখে দেবেন বঙ্গবাসীই৷ কারণ, ধর্মসমন্বয় আর সহিষ্ণুতা বাংলার ঐতিহ্য৷ এখানে সব ধর্মের উৎসব সমান গুরুত্বের সঙ্গে পালন করা হয়৷ তাঁর মতে, ধর্ম মহান৷ যা মানুষের হৃদয়কে আরও বড় করে, সংকুচিত করে না৷ এদিন বিজেপির বিরুদ্ধে মন্দির-রাজনীতির অভিযোগও তুলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তাঁর অভিযোগ, ‘৫ বছরে রাম মন্দির বানাতে পারেনি৷ একটাও মন্দির তৈরি হয়নি৷ আর এখানে আমরা প্রত্যেকটি মন্দিরের কেমন উন্নয়ন করেছি দেখুন এসে৷ তারাপীঠ, দক্ষিণেশ্বর থেকে শুরু করে সমস্ত তীর্থক্ষেত্রের সংস্কার করেছি৷’    

                                   [ আরও  পড়ুন :  প্রার্থী হওয়া নিয়ে মাথাব্যথা নেই, মানুষের জন্য কাজ করতে চান অগ্নিমিত্রা]

 

বুধবার অ্যান্টি স্যাটেলাইট মিসাইল এ-স্যাটের সফল উৎক্ষেপণ নিয়ে বিজেপির ভূমিকাও এদিন মুখ্যমন্ত্রীর নিশানায় ছিল৷ তাঁর কথায়, ‘ইসরো, ডিআরডিও নিজেদের কাজ চালাচ্ছে দীর্ঘদিন ধরেই৷ এটা আজকের সাফল্য নয়৷ কিন্তু বিজেপি এমনভাবে বিষয়টিকে উপস্থাপিত করছে, যেন নিজেরাই বিজ্ঞানী৷ একেকজনের কথা শুনে মনে হচ্ছে, তাঁরা কেউ গবেষক, কেউ বিজ্ঞানী, কেউ আবার ব্যাংক বিশেষজ্ঞ৷’ এই প্রসঙ্গেই তিনি টেনে আনেন জিএসটি সংক্রান্ত সমালোচনা৷ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অভিযোগ, জিএসটি লাগু হওয়ায় প্রচুর ছোট ব্যবসায়ী ক্ষতির মুখে পড়েছেন৷ সেসবে নজর দেয়নি কেন্দ্র৷ নিজেদের সিদ্ধান্ত দেশবাসীর উপর চাপিয়ে দিয়েছেন৷সবমিলিয়ে, নির্বাচনী মরশুমে হোলি মিলন উৎসবের মঞ্চ থেকে বিজেপি বিরোধিতার সুযোগ এতটুকুও হাতছাড়া করলেন না রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো৷  

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে