BREAKING NEWS

২১ চৈত্র  ১৪২৬  শনিবার ৪ এপ্রিল ২০২০ 

Advertisement

‘পুলিশকে গুলি করছে, ওদের কি চা খাওয়ানো উচিত?’ দিল্লি প্রসঙ্গে বেলাগাম দিলীপ

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: February 26, 2020 11:45 am|    Updated: February 26, 2020 11:50 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এবার দিল্লির সংঘর্ষে লাগাতার মৃত্যু প্রসঙ্গেও বেফাঁস মন্তব্য করলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষ। সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলে বসলেন, “যারা পুলিশকে পাথর মারছে, তাঁদের সঙ্গে আরও কড়া আচরণ করা উচিত।” বিজেপি সাংসদের এই মন্তব্যেই শুরু বিতর্ক।

শনিবার থেকে লাগাতার হিংসার ঘটনায় উত্তপ্ত দিল্লি। বুধবার সকালেও চলছে অশান্তি। উন্মত্ত জনতার রোষ থেকে বাদ যাচ্ছে না সমাজের কোনও অংশের মানুষই। প্রাথমিকভাবে নিজেদের মধ্যে সংঘর্ষে জড়ালেও পরে তাদের ‘টার্গেট’ হয়ে উঠেছে পুলিশ ও নিরাপত্তাবাহিনী। এরপর আক্রমণ করা হয় খবর সংগ্রহে আসা সাংবাদিকদেরও। মঙ্গলবার এক বৈদ্যুতিন মাধ‌্যমের কর্মী গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বলে পুলিশ সূত্রে খবর। আহত হয়েছেন আরও জনা পাঁচেক। ইতিমধ্যেই মৃতের সংখ‌্যা ২০। আহত প্রায় দেড়শোর উপর। যার মধ্যে ৫৬ জন পুলিশকর্মী। এই ঘটনার প্রভাব পড়েছে গোটা দেশে। ইতিমধ্যেই রাজ্যবাসীর কাছে আইশৃঙ্খলা বজায় রাখার আবেদন জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রত্যেক থানাকে বাড়তি সতর্কতা অবলম্বনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে সাংবাদিক বৈঠকে সাংসদ তথা রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ দিল্লি ইস্যুতে আলটপকা মন্তব্য করতেই জল্পনা শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

[আরও পড়ুন: উদ্বোধনের ১০ দিনের মাথায় দ্বিতীয়বার বিপত্তি ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোয়, খুললই না স্ক্রিন ডোর!]

দিল্লি মৃত্যু প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, “যারা পুলিশকে পাথর মারছে, গুলি করছে তাদের কি ডেকে চা খাওয়ানো উচিত ছিল?” এই দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে আরও কড়া পদক্ষেপ নেওয়া উচিত, এমনটাই দাবি তাঁর। পাশাপাশি জামিয়া প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, “জামিয়ায় পুলিশ ঢুকে দশজনকে গ্রেপ্তার করেছিল, তারা কেউ ছাত্র ছিল না। অথচ গোটা দেশে তুলকালাম হয়ে গেল। আর আজকে যখন তারাই আগুন জ্বালাচ্ছেন, তখন বিরোধী নেতারা দাঁড়িয়ে সেলফি তুলছেন! কাঠগড়ায় তোলা হচ্ছে প্রশাসনকে।” দিল্লি প্রসঙ্গে মন্তব্য করতে গিয়ে কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরিকেও আ্ক্রমণ করেন তিনি। প্রসঙ্গত, শাহিনবাগের আন্দোলন প্রসঙ্গে বেফাঁস মন্তব্য করে কটাক্ষের শিকার হতে হয়েছিল বিজেপি সাংসদকে। ফের একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি।

[আরও পড়ুন: জোর করে বিবাহিতা মেয়েকে দেহ ব্যবসায় নামিয়ে রোজগার! গ্রেপ্তার বাবা-মা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement