BREAKING NEWS

২৭ বৈশাখ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১১ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

টিকার দুটি ডোজ নেওয়ার পরও করোনার থাবা শরীরে! আক্রান্ত দন্ত চিকিৎসক

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: April 9, 2021 9:33 pm|    Updated: April 9, 2021 9:33 pm

COVID-vaccine

ছবি: প্রতীকী

অভিরূপ দাস: টিকার দু’টি ডোজই নিয়েছিলেন। তারপর পেরিয়ে গিয়েছে গোটা এক মাস। তারপরেও করোনা (Coronavirus) আক্রান্ত হলেন আর আহমেদ ডেন্টাল কলেজের সহকারী অধ্যক্ষ তন্ময় ঘোষ। ঘটনায় বিস্মিত ইন্ডিয়ান ডেন্টাল অ্যাসোসিয়েশনের (IMA) বঙ্গীয় শাখার সদস্যরা।

করোনা আক্রান্ত হয়ে বঙ্গে মৃত্যুর মুখে পড়েছেন অসংখ্য চিকিৎসক। সেই তালিকায় সর্বাগ্রে ছিলেন দন্তরোগ বিশেষজ্ঞরা। চিকিৎসা বিজ্ঞানের এই শাখায় চিকিৎসার স্বার্থেই রোগীর মুখগহ্বর স্পর্শ করা দস্তুর, তাই সহজেই সংক্রমিত হয়েছিলেন দন্ত চিকিৎসকরা। ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের বঙ্গীয় শাখার সম্পাদক ডা. রাজু বিশ্বাস জানাচ্ছেন, ”টিকাকরণ শুরু হওয়ার পর আমরা আশ্বস্ত হয়েছিলাম।” কিন্তু টিকার দুটি ডোজ নেওয়ার এক মাস পরেও কীভাবে করোনা আক্রান্ত হলেন ডেন্টাল কলেজের সহকারী অধ্যক্ষ? রাজ্যের অন্যতম ডেন্টাল কলেজের অ্যাসিস্ট্যান্ট সুপার করোনা বিধি মানেননি, এমনটাও তো বলা যাবে না। সূত্রের খবর, একমাস আগেই কোভিশিল্ডের দু’টি ডোজ নিয়ে ফেলেছিলেন আর আহমেদ ডেন্টাল কলেজের সহকারী অধ্যক্ষ।

[আরও পড়ুন: মমতার গড়ে রুদ্রনীলকে নিয়ে দুয়ারে দুয়ারে অমিত শাহ, চাকদহে রোড শো নাড্ডার]

বাংলা তথা গোটা দেশেই ক্রমশ বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। সংক্রমণ ঠেকাতে ভরসা টিকা (Corona vaccine)। কিন্তু টিকার দুটি ডোজ নেওয়ার পরেও অনেকে করোনা আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা চিন্তার ভাঁজ ফেলছে বিশেষজ্ঞদের কপালে। সূত্রের খবর, আর আহমেদ ডেন্টাল কলেজের অ্যাসিস্ট্যান্ট সুপারের স্ত্রীও করোনা আক্রান্ত। এই মুহূর্তে সাগর দত্ত মেডিক্যাল কলেজের আইসিইউতে (ICU) চিকিৎসাধীন তিনি। যদিও টিকা নিয়ে অযথা আতঙ্কিত হতে বারণ করছেন জনস্বাস্থ্য আধিকারিক অনির্বাণ দোলুই। আর আহমেদ ডেন্টাল কলেজের ঘটনা শুনে তিনি জানিয়েছেন, “ভ্যাকসিন নেওয়ার পরেও কোভিড আক্রান্ত হতে পারেন। এরকম ঘটনা অন্যত্রও ঘটেছে। আতঙ্কের কিছু নেই। ভ্যাকসিন নেওয়ার পর কিছু বিধিনিষেধ রয়েছে, সেগুলি না মানলে ফের আক্রান্ত হতে পারেন।”

টিকা নেওয়ার ১ মাস পরেও আক্রান্ত হওয়ার জন্য আমজনতার গা ছাড়া মনোভাবকেই দায়ী করেছেন জনস্বাস্থ্য আধিকারিক। বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য,গত কয়েকমাস ধরে সাধারণ মানুষের মধ্যে কোভিড বিধি মেনে চলার ক্ষেত্রে শিথিলতা দেখা যাচ্ছে। তার ফলেই ভুক্তভোগী হচ্ছেন এরকম মানুষরা। মাস্ক, স্যানিটাইজার নিয়মিত ব্যবহার করলে এবং দূরত্ব-বিধি মানলে এই বিপদ ঠেকানো যাবে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

[আরও পড়ুন: ব্যাংকে জমা কোটি টাকার বেশি, নির্বাচনী হলফনামায় সম্পত্তির হিসাব দিলেন মদন মিত্র]

টিকা নেওয়ার পরও করোনা আক্রান্ত হওয়ার ঘটনায় প্রশ্ন তুলছেন সাধারণ মানুষ। অনেকেই ভাবছেন, সেই যখন অসুখ হবেই তাহলে টিকা নিয়ে কি লাভ? এ নিয়ে জনস্বাস্থ্য আধিকারিক অনির্বাণ দোলুই জানিয়েছেন, করোনা ভ্যাকসিন তাৎক্ষণিকভাবে কাজ করে না। এই টিকা নেওয়ার পর এক সপ্তাহ পযর্ন্ত সাবধানতা চালিয়ে যাওয়া দরকার। ভ্যাকসিন রোগ প্রতিরোধের বিরুদ্ধে কাজ করে, এটি শরীরে ভালো প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরিতে কাজ করে। তবে এই সব কিছুর জন্য কয়েক সপ্তাহ পর্যন্ত সময় নিতে পারে। 

ভ্যাকসিনেশন সেন্টারগুলিতে আপাতত কোভ্যাক্সিন এবং কোভিশিল্ড টিকা দেওয়া হচ্ছে। প্রশ্ন উঠছে, কোন টিকা নেওয়া নিরাপদ? জনস্বাস্থ্য আধিকারিক জানিয়েছেন, দুটি টিকার কোনওটিরই ১০০ শতাংশ করোনা ঠেকানোর ক্ষমতা নেই। টিকা নিলে সংক্রমণ আর ছড়াবে না, তাও ১০০ শতাংশ নিশ্চিত করে বলা যায় না। ভ্যাকসিন সংক্রমণ নয়, অসুস্থতা এবং তীব্রতার হারকে হ্রাস করে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement