BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘দুর্গাপুজো নিয়ে যারা ভুয়ো খবর ছড়াচ্ছে তাদের কান ধরে ওঠবোস করান’, নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 8, 2020 4:20 pm|    Updated: September 8, 2020 4:20 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা পরিস্থিতিতে সমস্ত অনুষ্ঠানেই কাটছাঁট চলছে। কী হবে বাঙালির সেরা উৎসব দুর্গাপুজোর ভবিষ্যৎ? তা নিয়ে আমজনতার চিন্তার শেষ নেই। ঘুরে ঘুরে ঠাকুর দেখা, দেদার আড্ডা কী এবার পুজোর দিনকটাতেও দেওয়া যাবে না, পুজো যত এগিয়ে আসছে ততই যেন জাঁকিয়ে বসছে সেই চিন্তা। আর তা বাড়িয়ে দিচ্ছিল ভুয়ো এক হোয়াটসঅ্যাপ। এই ঘটনায় অত্যন্ত ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। যারা এই কাজ করেছে তাদের কান ধরে ওঠবোস করানোর কথাই বলেছেন তিনি।

ভুয়ো ওই হোয়াটসঅ্যাপে কী লেখা ছিল? তাতে লেখা ছিল এবছর পুজোয় (Durga Puja) সারারাত ঘুরে প্রতিমা দর্শন বন্ধ। পঞ্চমী থেকে একাদশী পর্যন্ত বিকেল পাঁচটার পর থেকে জারি থাকবে নাইট কারফিউ। এছাড়াও লেখা রয়েছে মণ্ডপে একসঙ্গে পাঁচজনের বেশি প্রবেশ করা যাবে না এবং প্রত্যেকের থার্মাল স্ক্রিনিং হবে। অষ্টমীর অঞ্জলিতে ফুল দেওয়া যাবে না। প্রতিমা নিরঞ্জনের সময় শোভাযাত্রা বন্ধ রাখার কথাও উল্লেখ রয়েছে ওই ভুয়ো মেসেজে।

[আরও পড়ুন: দুই নাবালিকাকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণ! একজন অপমানে আত্মঘাতী, চাঞ্চল্য জলপাইগুড়িতে]

যা নজরে আসে রাজ্য পুলিশের (West Bengal Police)। মঙ্গলবার টুইটে পুলিশের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে ওই মেসেজের কোনও সত্যতা নেই। যে বা যারা এই কাজ করেছে তাদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের তরফে ফেসবুক ও টুইটারে একটি ছবিও পোস্ট করা হয়। তাতে বড় অক্ষরে ‘ভুয়ো’ লেখা। ছবির সঙ্গে লেখা হয়েছে,”দুর্গাপুজো নিয়ে হোয়াটসঅ্যাপে এই গুজবটি ছড়াচ্ছে। এ রকম কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। দয়া করে মেসেজটি ফরোয়ার্ড করবেন না। এটি মিথ্যা।”

পুলিশ দিবসের অনুষ্ঠানে এই ঘটনা নিয়ে মুখ খোলেন মুখ্যমন্ত্রী। বিজেপির নাম না করে উল্লেখ করে তিনি বলেন, “এ কাজ কে করেছে সবাই জানে। নাম আর বলব না। যারা দুর্গাপুজো করেনি জীবনে তারা পুজো নিয়ে ফেক নিউজ ছড়াচ্ছে। যারা ভুয়ো মেসেজ ছড়িয়েছে তাদের কান ধরে ওঠবোস করাও। অহংকারী দল ,পাষণ্ডের দল, নির্লজ্জ, শোষণের দল। সরকার মিটিংই করেনি। পুজো নিয়ে সরকার এ ধরনের কোনও সিদ্ধান্ত নিয়েছে এটা প্রমাণ করতে পারলে আমি সবার সামনে ওঠবোস করব।” যদিও এর পালটা এখনও গেরুয়া শিবিরের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

[আরও পড়ুন: কঙ্গনার জন্য কেন ‘Y’ ক্যাটাগরির নিরাপত্তার ব্যবস্থা? কেন্দ্রকে প্রশ্ন তৃণমূল সাংসদ মহুয়ার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement