১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  রবিবার ২ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

এবার অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের চিনার পার্কের ফ্ল্যাটে হানা ইডি’র, মিলবে আরও সম্পত্তি?

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: July 28, 2022 5:48 pm|    Updated: July 28, 2022 6:16 pm

ED conducts raid at Arpita Mukherjee apartment in Chinar Park | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: টালিগঞ্জ, বেলঘরিয়ার পর এবার চিনার পার্ক। বৃহস্পতিবার বিকেলে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের (Arpita Mukherjee) চিনার পার্কের ন’পাড়া আটঘড়া এলাকার ফ্ল্যাটে হানা ইডির। টালিগঞ্জ-বেলঘরিয়ার মতো এবারও কি উদ্ধার হবে প্রচুর নগদ টাকা? সেই প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে সবমহলে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে চিনার পার্কে পৌঁছন ইডির আধিকারিকরা। সঙ্গে কেন্দ্রীয় বাহিনী। জানা যায়, চিনার পার্কের রয়্যাল রেসিডেন্সির বি ব্লকের ৪০৪ নম্বরটি ফ্ল্যাটটি অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের। ২০১৭ সালে ফ্ল্যাটটি কিনেছিলেন তিনি। ওই আবাসনে পৌঁছেই প্রথমে সেখানকার নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে কথা বলেন ইডির আধিকারিকরা। জানতে চান অর্পিতা মুখোপাধ্যায় কিংবা পার্থ চট্টোপাধ্যায় সেখানে যাতায়াত করতেন কি না। এরপর সোজা পৌঁছে যান ফ্ল্যাট নম্বর বি-৪০৪ এর সামনে। গিয়ে দেখতে পান ফ্ল্যাট তালা বন্ধ। এরপর পাশের ফ্ল্যাটের বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলেন তাঁরা। ওই আবাসনের বাসিন্দারা জানিয়েছেন, তাঁরা অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে দেখেননি। তবে এই গোটা ঘটনায় হতবাক তাঁরাও। কতক্ষণে ফ্ল্যাট খুলতে পারবেন ইডির আধিকারিকরা, সেই অপেক্ষায় সব মহল।

[আরও পড়ুন: অর্পিতার বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাটে স্বর্ণভাণ্ডার, কী কী উদ্ধার করল ইডি?]

ED seized approx 15 crore rupees from Partha Chatterjee's aide Arpita Mukherjee's Belgharia's flat
বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হওয়া টাকা।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার গ্রেপ্তার করা হয় পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chattejee) ও অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে। গ্রেপ্তারির আগেই অর্পিতার টালিগঞ্জের ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছিল নগদ প্রায় ২২ কোটি টাকা। তারপরই প্রথমে তাঁকে আটক ও পরে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রথমে তিনি তদন্তে সহযোগিতা না করলেও চাপের মুখে অবশেষে মুখ খোলেন অর্পিতা। তাঁর থেকে পাওয়া তথ্যের সূত্র ধরেই বুধবার বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাটে হানা দেয় ইডি আধিকারিকরা। উদ্ধার হয় প্রায় ২৮ কোটি টাকা ও সোনা-রুপো। এবার নজরে চিনার পার্কের ফ্ল্যাট। বুধবারের মতো বৃহস্পতিবারও ফ্ল্যাটে ঢুকতে গিয়ে সমস্যায় পড়েন আধিকারিকরা। কারণ, ফ্ল্যাটটি তালাবন্ধ। তবে বর্তমানে চেষ্টা চলছে তালা ভাঙার।

এদিকে খোঁজ পাওয়া গিয়েছে পার্থ-অর্পিতার আরও বহু সম্পত্তির। সূত্র বলছে, বাংলার মোট ৩২ জায়গায় সম্পত্তি রয়েছে তাঁদের। তার মধ্যে বানতলার চর্মনগরীর পিছনে দশ বিঘা জমি রয়েছে। স্থানীয়দের দাবি, ওই জমি প্রাক্তন শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বলেই জানতেন তাঁরা। অর্পিতা ও ইচ্ছে এন্টারটেনমেন্টের নামে কেনা হয়েছিল এই জমি। 

[আরও পড়ুন: টাকা হাতানো নাকি নথি লোপাটই উদ্দেশ্য? পার্থর বেগমপুরের বাগানবাড়িতে ‘চুরি’ ঘিরে রহস্য]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে