BREAKING NEWS

২০ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

দুর্নীতি রুখতে কড়া দাওয়াই, কলেজে অনলাইনে ভরতির নির্দেশ শিক্ষামন্ত্রীর

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: May 20, 2019 5:58 pm|    Updated: May 20, 2019 5:59 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভরতিতে বেনিয়ম ও তোলাবাজি রুখতে কড়া পদক্ষেপ নিল শিক্ষাদপ্তর। সমস্ত কলেজে অনলাইনে পড়ুয়াদের ভরতি নেওয়ার নির্দেশ দিলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। শিক্ষামন্ত্রী সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, ভরতি প্রক্রিয়া চলাকালীন কোনও পড়ুয়াকে ক্যাম্পাসে ডাকা যাবে না। কলেজ চত্বরে হেল্পডেস্কও খুলতে পারবে না ছাত্র সংগঠনগুলি। অনলাইনে ভরতি হওয়ার পর পড়ুয়ারা যখন ক্লাস করতে শুরু করবে, তখন নথি যাচাই করতে হবে কলেজ কর্তৃপক্ষকে। নথিতে যদি কোনও ভুল থাকে, সেক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট পড়ুয়ার ভরতি বাতিল হয়ে যাবে।

[আরও পড়ুন: চলতি শিক্ষাবর্ষে অনলাইনে স্নাতকে ভরতি, সিদ্ধান্ত কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের]

উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার রেজাল্ট বেরোবে আগামী ২৭ মে। গতবার কলেজে ভরতিতে দুর্নীতি ও তোলাবাজির অভিযোগে মুখ পুড়েছিল রাজ্য সরকার। পড়ুয়াদের অভিযোগ ছিল, কলেজে কাউন্সেলিং বা নথি যাচাইয়ের সময়ে বেআইনিভাবে টাকা তুলছেন ছাত্র সংগঠনের নেতারা। আর যেহেতু রাজ্যের বেশিরভাগ কলেজের ছাত্র সংগঠন তৃণমূল ছাত্র পরিষদের দখলে, তাই ঘটনায় নাম জড়িয়েছিল শাসকদলের ছাত্রনেতাদেরও। পরিস্থিতি এমন জায়গায় পৌঁছায় যে, পুলিশকে সক্রিয় হওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গ্রেপ্তার হন তৃণমূল ছাত্র পরিষদের বেশ কয়েকজন নেতা। দলের ভাবমূর্তি ফেরাতে টিএমসিপির রাজ্য সভানেত্রীর পদ থেকে জয়া দত্তকে সরিয়ে দেয় তৃণমূল কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব। বস্তুত, ভরতি মরশুমের মাঝপথেই কলেজে অনলাইনে ভরতির নির্দেশিকাও জারি করেছিল উচ্চ শিক্ষাদপ্তর। কিন্তু, তাতেও পড়ুয়াদের ভোগান্তি কমেনি বলে অভিযোগ। তাই এবার আর ঝুঁকি নিতে নারাজ রাজ্য শিক্ষাদপ্তর।

সোমবার রাজ্যের সমস্ত কলেজের অধ্যক্ষদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। বৈঠকে নথি যাচাই ছাড়া ভরতি-সংক্রান্ত সমস্ত কাজই অনলাইনে করার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। নথি যাচাইযের জন্যও কিন্তু পড়ুয়াদের ক্যাম্পাসে ডাকতে পারবে না কলেজ কর্তৃপক্ষ। শিক্ষামন্ত্রীর নির্দেশ, নতুন শিক্ষাবর্ষের ক্লাস শুরু হওয়ার পর পড়ুয়াদের নথি যাচাই করতে হবে। তখন যদি নথিতে কোনও ভুল ধরা পড়ে, সেক্ষেত্রে ভরতি বাতিল হয়ে যাবে। দিন কয়েক আগে বিজ্ঞপ্তি জারি করে চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকে অনলাইনে পড়ুয়া ভরতি নেওয়ার কথা জানিয়েছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

[আরও পড়ুন: মাথায় ভেঙে পড়ল লোহার বিম, হাওড়া স্টেশনে আহত মহিলা-সহ বেশ কয়েকজন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement