BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

পাশের বেডেই মৃত্যু করোনা রোগীর! আতঙ্কে আরজি কর হাসপাতাল থেকে পলাতক বৃদ্ধ

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: August 24, 2020 10:41 am|    Updated: August 24, 2020 10:41 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা (Coronavirus) আবহে এবার আরজি হাসপাতাল থেকে পালাল এক রোগী। পরিবারের সদস্যরা তাঁকে দেখতে হাসপাতালে এসে দিশেহারা পরিস্থিতিতে। কারণ, তিনি তো নেই! পরে প্রতিবেশী মারফত তাঁরা জানতে পারেন, বৃদ্ধ হাসপাতাল থেকে পালিয়ে সোজা হাজির হয়েছেন বাড়িতে। এই ঘটনায় ফের প্রশ্নের মুখে সরকারি হাসপাতালের নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

জানা গিয়েছে, দমদম এয়ারপোর্ট এলাকার বাসিন্দা বছর ৭৫-এর ওই বৃদ্ধের নাম শিবপ্রসাদ সাউ। দীর্ঘদিন ধরেই হৃদরোগে ভুগছিলেন তিনি। ১৯ আগস্ট পরিবারের সদস্যরা তাঁকে নিয়ে যান আরজি কর হাসপাতালে। নিয়ম মেনে প্রথমে তাঁকে রাখা হয় আইসোলেশন ওয়ার্ডে। নমুনা পাঠানো হয় করোনা পরীক্ষার জন্য। রিপোর্ট আসতেই জানা যায়, তিনি আক্রান্ত নন। এরপর হাসপাতালের অন্য ওয়ার্ডে স্থানান্তরিত করা হয় তাঁকে। এরপর ২১ তারিখ বাবার খোঁজে হাসপাতালে যান বৃদ্ধের ছেলে। সেই সময় হাসপাতালের এক ওয়ার্ড বয় জানান যে, বৃদ্ধ বেপাত্তা। গোটা দিনেও খোঁজ মেলেনি তাঁর। এরপর হাসপাতালের আউটপোস্টে অভিযোগ দায়েরের সিদ্ধান্ত নেন বৃদ্ধের ছেলে। সেই সময় তিনি জানতে পারেন যে, তাঁর বাবা বাড়িতে হাজির হয়েছেন।

[আরও পড়ুন: তৃণমূল সম্পর্কে কী ভাবছে যুবসমাজ? ইঙ্গিত পেতে ২৮ আগস্টের ভারচুয়াল সভার ‘শেয়ারে’ নজর দলের]

কিন্তু কেন হাসপাতাল ছাড়লেন বৃদ্ধ? বৃদ্ধের দাবি, তাঁর পাশের বেডের এক করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছিল চোখের সামনে। ফলে আতঙ্ক গ্রাস করেছিল তাঁকে। সেই কারণেই প্রাণ বাঁচাতে পালিয়ে যান তিনি। কেন কারও নজরে পড়ল না বিষয়টি? যদিও এপ্রসঙ্গের উত্তর দিতে পারেনি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। আর জি কর হাসপাতালের প্রিন্সিপাল শুদ্ধোদন বটব্যাল বলেন, ‘‘ওই ওয়ার্ডে একাধিক নিরাপত্তারক্ষী আছেন। তা সত্ত্বেও কী ভাবে এই ঘটনা ঘটল, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তবে বাবাকে ফিরে পেরে স্বস্তিতে ছেলে।

[আরও পড়ুন: কাউকে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী না করেই বাংলায় লড়বে বিজেপি, জানালেন কৈলাস]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement