BREAKING NEWS

১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

অবস্থা ভাল নয়! ভাঙা পড়তে পারে টালা ব্রিজের দুর্বল অংশ

Published by: Tanujit Das |    Posted: September 25, 2019 7:04 pm|    Updated: September 25, 2019 7:04 pm

Government may demolish the weak part of Tala Bridge

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অবস্থা ভাল নয়৷ ভেঙে ফেলতে হবে টালা ব্রিজের দুর্বল অংশ৷ সাম্প্রতিক রিপোর্টে রাজ্য প্রশাসনকে এই সুপারিশ দিল বিশেষজ্ঞ সংস্থা ‘রাইটস’৷ নবান্ন সূত্রে খবর, এই মর্মে আগামিকাল মুখ্যসচিবের নেতৃত্বে একটি বৈঠক হয়েছে৷ সেই বৈঠকেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে৷ 

[ আরও পড়ুন: ‘কোথায় রাজীব?’, গোয়েন্দা প্রধানের খোঁজে ফের ডিজিকে চিঠি সিবিআইয়ের ]

জানা গিয়েছে, রাইটসের সুপারিশের পরেও আরও একটি বিশেষজ্ঞ সংস্থার পরামর্শ নিতে চাইছে রাজ্য সরকার৷ তারাও ভেঙে ফেলার পরামর্শ দিলে, তখন বিকল্প পথ ভাবা হবে৷ বৃহত্তর কলকাতার সঙ্গে মূল কলকাতার সংযোগকারী এই ব্রিজের একটা অংশ ভাঙার কাজ শুরু হলে, স্বভাবতই উত্তর ও মধ্য কলকাতায় প্রবল যানজট তৈরির আশঙ্কা থাকছে৷ এবং একই সঙ্গে বিটি রোড দিয়ে টালা ব্রিজ মারফত যে গাড়িগুলি শ্যামবাজার বা বাগবাজারে আসে, তাদের জন্য বিকল্প পথের ব্যবস্থা করতে হবে প্রশাসনকে৷ ফলে ইতিমধ্যে সেই চিন্তা ভাবাতে শুরু করেছে পুলিশ শীর্ষ আধিকারিকদের৷ সূত্রের খবর, শিয়রে পুজো থাকায়, এখনই সেই কাজে হাত দিতে চাইছে না প্রশাসন৷ পুজো মিটলে বিষয়টি ভেবে দেখতে চাইছেন অফিসাররা৷  

[ আরও পড়ুন: মেট্রো চড়েই পুজো পরিক্রমা? জেনে নিন এই নয়া নিয়ম ]

উল্লেখ্য, মাঝেরহাট সেতু ভেঙে পড়ার পর থেকেই শহরের বিভিন্ন সেতু ও উড়ালপুলের দুরবস্থা নিয়ে অভিযোগ ওঠে। রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে থাকা সরকারি সংস্থার তরফে সেতু ও উড়ালপুলগুলির স্বাস্থ্য পরীক্ষা শুরু হয়। টালা ব্রিজ অর্থাৎ হেমন্ত সেতুর স্বাস্থ্য নিয়েও হতাশাজনক রিপোর্ট দেয় বিশেষজ্ঞ সংস্থা৷ রিপোর্টে জানান হয়, টালা ব্রিজের অবস্থা ভাল নয়। ভারী পণ্যবাহী ট্রাক ও ভারী যান চলাচলের কারণে সেতুর অবস্থা দিন দিন আরও খারাপ হচ্ছে। এর আগে শহরের একাধিক সেতুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেছেন বিশেষজ্ঞরা৷ কয়েকদিন বন্ধ রেখে সেই সেতু ও উড়ালপুলগুলির স্বাস্থ্য পরীক্ষা চালানো হয়৷ সেই রিপোর্ট নবান্নের হাতে তুলে দেন বিশেষজ্ঞরা৷  

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে