৭  আশ্বিন  ১৪২৯  রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

প্রেসিডেন্সি হস্টেল বিতর্কে হস্তক্ষেপ রাজ্যের, কর্তৃপক্ষকে বেঁধে দেওয়া হল সময়সীমা

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: October 5, 2018 7:40 pm|    Updated: October 5, 2018 7:49 pm

Govt order to complete repairing work in Hindu Hostel within 15 November

ফাইল ফটো

দীপংকর মণ্ডল: প্রেসিডেন্সিতে হিন্দু হস্টেল নিয়ে অচলাবস্থা কাটাতে হস্তক্ষেপ করল রাজ্য সরকার৷ ১৫ নভেম্বরের মধ্যে হস্টেলের একটি অংশকে বাসযোগ্য করে তুলতে হবে৷ হস্টেলে থাকতে পারবেন ১১০ জন৷ প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ চিঠি দিয়েছে উচ্চশিক্ষা দপ্তর৷ চিঠির প্রাপ্তি স্বীকার করেছেন উপাচার্য অনুরাধা লোহিয়া৷ এদিকে শুক্রবার হিন্দু হস্টেলে চালু করা নিয়ে বৈঠকে বসে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷ বৈঠকে ছাত্র প্রতিনিধিরাও হাজির ছিলেন বলে জানা গিয়েছে৷

]শহরের স্কুলে তিন ছাত্রীকে যৌন নিগ্রহ, অভিযুক্ত শিক্ষককে বেধড়ক মারধর]

হিন্দু হস্টেল নিয়ে বিতর্কে চরমে৷ আন্দোলনে প্রেসিডেন্সির পড়ুয়ারা৷ প্রায় দু’মাস বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্যাম্পাসে অবস্থান করছেন হিন্দু হস্টেলের আবাসিকরা৷ আন্দোলন করতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন তিনজন৷ পড়ুয়ায়া এতটাই ক্ষুদ্ধ, যে ১০ সেপ্টেম্বর প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় গেটে তালা ঝুলিয়ে দেন তাঁরা৷ ক্যাম্পাসে ঢুকতেই পারেননি খোদ উপাচার্য অনুরাধ লোহিয়া-সহ অন্য অধ্যাপকরা৷ দীর্ঘক্ষণ রাস্তায় দাঁড়িয়ে থেকে ফিরে যেতে হয় তাঁদের৷ ভেস্তে যায় গর্ভনিং বডির বৈঠক৷ পড়ুয়াদের বিক্ষোভের কারণে ক্যাম্পাস থেকে সমাবর্তন অনুষ্ঠান সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন কর্তৃপক্ষ৷ প্রেসিডেন্সির বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনষ্ঠান হয় নন্দনে৷ যা নজিরবিহীন৷

 পড়ুয়াদের দাবি, হিন্দু হস্টেলের বেশ কয়েকটি ব্লকের মেরামতির কাজ শেষ৷ কর্তৃপক্ষ চাইলেই হস্টেলের একাংশ পড়ুয়াদের ব্যবহার জন্য খুলে দেওয়া যেতে পারে৷ অন্যদিকে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের দাবি, হিন্দু হস্টেল সংস্কারের কাজ করছে পূর্ত দপ্তর৷ তাই পূর্ত দপ্তরের অনুমতি ছা়ড়া হিন্দু হস্টেল পড়ুয়াদের ব্যবহার করতে দেওয়া যাবে না৷ অচলাবস্থা কাটাতে শুক্রবার পূর্ত দপ্তরের আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠকও করে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বৈঠকে ছাত্র প্রতিনিধিরাও হাজির ছিলেন বলে খবর৷ যদিও তাতেও বিশেষ লাভ হয়নি৷ শেষপর্যন্ত  হিন্দু হস্টেল বিতর্কে হস্তক্ষেপ করল রাজ্য সরকার৷ প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়েছে উচ্চশিক্ষা দপ্তর৷ চিঠিতে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ১৫ নভেম্বরের মধ্যে হিন্দু হস্টেলের একাংশ বাসযোগ্য করতে তুলতে হবে৷ হস্টেলে থাকতে পারবেন ১১০ জন পড়ুয়ার৷ ২০১৫ সালে সংস্কারের জন্য হিন্দু হস্টেল খালি করে দেওয়া হয়৷ ঠিক ছিল, গত বছরের জুলাই মাস থেকে ফের চালু হবে হস্টেলে৷ কিন্তু তা হয়নি৷ রাজারহাটে একটি আবাসনে পড়ুয়াদের থাকার ব্যবস্থা করেছে প্রেসিডেন্সি কর্তৃপক্ষ৷

[ সরকারি কর্মীদের জন্য সুখবর, পুজোয় টানা ১৬ দিন ছুটির সুযোগ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে