BREAKING NEWS

১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘কোনও প্রমাণ আছে?’, ফোনে আড়ি পাতা নিয়ে মমতাকে প্রশ্ন দিলীপের

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: November 3, 2019 3:28 pm|    Updated: November 3, 2019 3:28 pm

Have any proof of phone tapping? Dilip Ghosh asks Mamata Banerjee

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফোনে আড়ি পাতা নিয়ে এবার মুখ্যমন্ত্রীকে পালটা দিলীপ ঘোষের। শনিবারই তাঁর ফোনে আড়ি পাতা হচ্ছে বলে অভিযোগ তোলেন মমতা। এর জন্য কেন্দ্রকে কাঠগড়ায় তোলেন তিনি। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে এবার পালটা কটাক্ষ রাজ্য বিজেপি সভাপতির। দিলীপ ঘোষ বলেন. উনি হেরে গিয়ে উলটো-পালটা বলছেন। এর কোনও প্রমাণ আছে কি?

এই তথ্য ফাঁসের ঘটনা নিয়েই এদিন সরব হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। সরাসরি দায় চাপিয়েছেন কেন্দ্রের উপর। তাঁর অভিযোগ, এনএসও’ই ওই সফটওয়্যার কেন্দ্রকে দিয়েছে। কেন্দ্রের নির্দেশেই ফোন-হোয়াটসঅ্যাপে আড়ি পাতা হচ্ছে। জাসুসি চলছে। মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, “ভারতীয় সংবিধানের ৪১ নম্বর ধারা অনুযায়ী আমাদের প্রত্যেকের মত প্রকাশের স্বাধীনতা আছে। কিন্তু আমরা কি স্বাধীনতা পাচ্ছি? কেউ কথা বললেই তা শুনে ফেলছে। আগে তো হোয়াটসঅ্যাপ সেফ ছিল। এখন তো তা-ও খোলা যায়। ল্যান্ড ফোন, মোবাইল, হোয়াটসঅ্যাপে জাসুসি চলছে। এটা সিরিয়াস বিষয়। ব্যক্তি স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে।”

এর পরই সরাসরি কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন মমতা। বলেন, “আমার ফোন ট্যাপ হচ্ছে। আমার কাছে খবর আছে। কী পাবে ফোন ট্যাপ করে? সরকারই তো আমার ফোন ট্যাপ করছে।” প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর অভিযোগের প্রেক্ষিতে দিলীপের পালটা, ‘ফোন ট্যাপের কথা তো তিনি আগেও বলেছেন। কোনও প্রমাণ আছে কি?’ এরপরই তাঁর কটাক্ষ, ‘হেরে হতাশ হয়ে এসব উলটো-পালটা কথা বলে মানুষ। এসব কথা না বলে যেটুকু সময় আছে ঠিকঠাক কাজ করুন।’

[আরও পড়ুন: ‘আমার ফোনে আড়ি পাতছে কেন্দ্র’, বিস্ফোরক অভিযোগ মমতার]

প্রসঙ্গত, তথ্য ফাঁসের বিষয় নিয়ে লোকসভা ভোটের সময়ও কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন মমতা। শনিবার হোয়াটসঅ্যাপ নিয়ে তাঁর সমালোচনার মুখে পড়ে সরকার। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “এটা ফ্যাক্ট যে ইজরায়েলের সংস্থা এনএসও ফোন ট্যাপ করার ওই সফটওয়্যার কেন্দ্রকে দিয়েছে। এর সঙ্গে দু’টি র‌াজ্যের সরকারও যুক্ত আছে। তাদের নাম বলব না। কিন্তু তাদের মধ্যে একটি বিজেপি সরকার।” বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যে নিজের নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে বেশ কিছুটা খোঁজখবরও নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

বিষয়টির ভয়াবহতা নিয়ে বলেছেন, “এভাবে হোয়াটসঅ্যাপ ফাঁস করার জন্য একটি বিশেষ গাড়ি ব্যবহার করা হচ্ছে। সেই গাড়ির মধ্যে ওই সফটওয়ার রয়েছে। গাড়ি যেখানে যাচ্ছে সেখানে ১০ কিলোমিটারের মধ্যে যে কারও ইচ্ছে ফোন কিংবা হোয়াটসঅ্যাপ থেকে তথ্য নিয়ে নিচ্ছে।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে