১ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ১৯ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ১৯ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অনাস্থা মামলায় বড় স্বস্তি পেলেন বিধাননগরের মেয়র সব্যসাচী দত্ত৷ তাঁর বিরুদ্ধে বিধাননগর পুরসভার তৃণমূল কাউন্সিলররা যে অনাস্থা প্রস্তাব এনেছিলেন, তা খারিজ করল কলকাতা হাই কোর্ট৷ রায়দানের সময় বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায় জানালেন, ‘আগামিকাল বিধাননগর পুরনিগমে আস্থা ভোট হবে না৷ নিয়ম মেনে দেওয়া হয়নি নোটিস৷ কমিশনারের নোটিস জারির কোনও এক্তিকার নেই৷ তলবি সভা ডাকতে পারেন শুধুমাত্র চেয়ারপার্সন৷’ নির্দেশ দিলেন, বুধবার থেকে দু’দিনের ভিতরে ফের অনাস্থা নোটিস দিতে হবে৷

[ আরও পড়ুন: ‘বিজেপিতে নাম লেখাইনি’, জল্পনা উড়িয়ে অবস্থান স্পষ্ট করলেন মাধবী মুখোপাধ্যায়]

এই মামলায় বুধবার হাই কোর্টের রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন বিধাননগর পুরনিগমের মেয়র সব্যসাচী দত্ত৷ তিনি বলেন, ‘‘নোটিস দেখেই মনে হয়েছিল গলদ রয়েছে৷ আগেও আদালতের রায় অক্ষরে অক্ষরে পালন করেছি৷ এখনও আইনজীবীদের পরামর্শ মেনে কাজ করছি৷ মেয়র হিসাবে আগেও দায়িত্ব পালন করেছি৷ এখনও করব৷’’ আস্থা ভোটে জয়ের বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী সব্যসাচী আরও বলেন, ‘‘আমার ভোট রয়েছে আমি জানি৷ আর কী হবে দেখতে থাকুন৷’’ এখানেই শেষ নয়, এদিন বনগাঁ পুরসভার আস্থা ভোটেও আইন-শৃঙ্খলা মানা হয়নি বলে রাজ্য প্রশাসনের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন সব্যসাচী৷ জানান, ‘‘ভোট হয়েছে কিনা বলতে পারব না৷ তবে আইন-শৃঙ্খলা ব্যাপক ভাবে অবনতি হয়েছে৷’’

প্রসঙ্গত, জল্পনা মতো চলতি মাসেই বিধাননগর পুরসভার মেয়র সব্যসাচী দত্তর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব জমা দেয় তৃণমূল কংগ্রেস। অনাস্থা চিঠিতে স্বাক্ষর করেন তৃণমূলের ৩৫ জন কাউন্সিলর৷ ডেপুটি মেয়র তাপস চট্টোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে পুরসভার চেয়ারপার্সন কৃষ্ণা চক্রবর্তীর কাছে চিঠি জমা দেন কাউন্সিলররা৷ বৃহস্পতিবার সেই আস্থা ভোট হওয়ার কথা ছিল৷ কিন্তু এই প্রস্তাবেরই বিরোধিতা করেন সব্যসাচী দত্ত৷ এই প্রস্তাবের বিরুদ্ধে হাই কোর্টে মামলা করেন তিনি৷ এরপরই সোমবার বিধাননগরে চেয়ারপার্সন কৃষ্ণা চক্রবর্তীকে মামলায় যুক্ত করতে বলে হাই কোর্ট। এবং মঙ্গলবার এই মামলায় সংশ্লিষ্ট সব কাউন্সিলরকে পক্ষভুক্ত করার নির্দেশ দেয় আদালত। যে কাউন্সিলররা অনাস্থা প্রস্তাবে সই করেছিলেন তাঁদেরও মামলায় যুক্ত করতে হবে বলে জানান বিচারপতি।

[ আরও পড়ুন: যমে-মানুষের লড়াইয়ে ইতি, চলে গেলেন অভিনেতা স্বরূপ দত্ত ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং