BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২৯ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

দলীয় কর্মীর উপর হামলার প্রতিবাদ, হিন্দু জাগরণ মঞ্চের মিছিল ঘিরে শিয়ালদহে ধুন্ধুমার

Published by: Sayani Sen |    Posted: December 4, 2019 2:25 pm|    Updated: December 4, 2019 2:25 pm

Hindu Jagaran Mancha members clash with police in Kolkata

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: দলীয় কর্মীকে গুলির প্রতিবাদে হিন্দু জাগরণ মঞ্চের মিছিলকে ঘিরে ফের শহরে ধুন্ধুমার। শিয়ালদহ স্টেশন চত্বরে প্রথমে ওই মিছিলে বাধা দেয় পুলিশ। এরপর এনআরএস হাসপাতালের সামনে থেকে মিছিল শুরু হয়। ধর্মতলা চত্বরের কাছে ফের মিছিলে বাধা দেয় পুলিশ। করা হয় লাঠিচার্জ। পুলিশের দাবি, অনুমতি ছাড়া মিছিল করার জন্য হিন্দু জাগরণ মঞ্চের কর্মী সমর্থকদের বাধা দেওয়া হয়। অনুমতি ছাড়া মিছিল করার কথা মেনে নিয়ে পালটা কর্মী সমর্থকদের দাবি, অনুমতি নিয়েও কখনও মিছিল করতে দেওয়া হয়নি। তাই অনুমতি ছাড়াই মিছিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

গত ৩ ডিসেম্বরে মেটিয়াবুরুজে গুলিবিদ্ধ হন বিজেপি তথা আরএসএস কর্মী বীর বাহাদুর সিং। গুরুতর জখম অবস্থায় বর্তমানে এসএসকেএম হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন তিনি। মঙ্গলবার হাসপাতালে তাঁর সঙ্গে দেখা করেন গেরুয়া শিবিরের শীর্ষস্তরের নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়। তাঁর পরিজনদের সঙ্গেও কথা বলেন তিনি। এই ঘটনার নেপথ্যে তৃণমূল কর্মী সমর্থকরাই জড়িত রয়েছে বলেই অভিযোগ বিজেপির। দলীয় কর্মীর গুলিবিদ্ধ হওয়ার ঘটনার প্রতিবাদে বুধবার পথে নেমে আন্দোলনের ডাক দেয় হিন্দু জাগরণ মঞ্চ। নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী এদিন সকালে শিয়ালদহ স্টেশনে চত্বরে জমায়েত হন দলীয় কর্মী সমর্থকরা। তাঁদের পরিকল্পনা ছিল রানি রাসমণি অ্যাভিনিউ পর্যন্ত মিছিল করবেন। তবে আগে থেকে এই মিছিলের জন্য কোনও পুলিশি অনুমতি নেওয়া হয়নি। তাই শিয়ালদহ স্টেশন চত্বরে পুলিশ মিছিলে বাধা দেয়। আটক করা হয় হিন্দু জাগরণ মঞ্চের কমপক্ষে ৫০ জনকে আটক করা হয়।

[আরও পড়ুন: ‘মানুষের মতে তৃণমূল ছাগলের প্রথম সন্তান’, বিধানসভায় বললেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী]

পরিস্থিতি ঘোরাল তা বুঝতে অসুবিধা হয়নি হিন্দু জাগরণ মঞ্চের সদস্যদের। তাই বাধ্য হয়ে পরিকল্পনা বদল করে তারা। প্রায় পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে এনআরএস হাসপাতালের সামনে থেকেই মিছিল শুরু করেন হিন্দু জাগরণ মঞ্চের কর্মী সমর্থকরা। মিছিল প্রায় মৌলালি মোড়ে পৌঁছনোর পর পুলিশ তা টের পায়। ততক্ষণে যদিও ধর্মতলা পৌঁছে গিয়েছেন মিছিলকারীদের একাংশ। অবশেষে ধর্মতলা চত্বরে মিছিলে বাধা দেয় পুলিশ। মিছিলকারীদের দাবি, লাঠিচার্জও করে পুলিশ। তাতেই ছত্রভঙ্গ হয়ে যান মিছিলকারীরা। তবে অনুমতি ছাড়া কেন মিছিল করলেন হিন্দু জাগরণ মঞ্চ? সদস্যদের দাবি, এর আগে শহরের বুকে প্রতিবাদ মিছিল কিংবা বিক্ষোভ কর্মসূচি পালনের জন্য পুলিশের থেকে অনুমতি নেওয়া হয়েছে। তবে অনুমতি দেওয়া সত্ত্বেও পুলিশ বারবারই মিছিলে বাধা দিয়েছে। তাই বাধ্য হয়েই এবার থেকে অনুমতি না নিয়েই মিছিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন হিন্দু জাগরণ মঞ্চের সদস্যরা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে