৪ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo দিল্লি ২০২০ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

দীপঙ্কর মণ্ডল: রাজ্যের স্কুল সার্ভিস কমিশনের (এসএসসি) চেয়ারম্যান সৌমিত্র সরকারকে সরিয়ে দিল রাজ্য সরকার। উচ্চপ্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগ করে এসএসসি। জানা গিয়েছে, বুধবার তাঁকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। তাঁর জায়গায় অস্থায়ীভাবে এসএসসির এক আধিকারিক কাজ চালাবেন। তারপর একজন স্থায়ী চেয়ারম্যান নিয়োগ করবে রাজ্য সরকার।

প্রসঙ্গত, শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগ গত বছর বেশ কয়েকটি আন্দোলন হয়। ধর্মতলায় পরীক্ষার্থীদের আন্দোলন প্রত্যাহারে মাঠে নামতে হয়েছিল মুখ্যমন্ত্রীকে। তারপরও প্রচুর পরীক্ষার্থী আদালতে মামলা করেন। আদালতের নির্দেশে কিছু পদক্ষেপ করতে বাধ্য হয় এসএসসি। পরীক্ষার্থীদের অভিযোগ জমা নেওয়া হয়। কিন্তু তার উপর ভিত্তি করে কী ব্যবস্থা হল তা জানা যায়নি। আগামী বছর রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন। তার আগে ফের কয়েক হাজার শিক্ষক নিয়োগ করবে সরকার। শিক্ষা মহলের মতে, যে সংস্থা নিয়োগের দায়িত্বে থাকবে তার শীর্ষ কর্তার বিরুদ্ধে যাতে কোনও অভিযোগ না ওঠে তা নিশ্চিত করতে সৌমিত্রবাবুকে সরিয়ে দিল স্কুলশিক্ষা দপ্তর।

[আরও পড়ুন: কেন্দ্রের ডাকা এনপিআর সংক্রান্ত বৈঠকে যাচ্ছেন না, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর]

কয়েকমাস আগে কাউকে না জানিয়ে হঠাৎ ছুটিতে চলে যান তিনি। এনিয়ে দপ্তর শোকজও করেছিল। সূত্রের খবর, সৌমিত্রবাবুর বিরুদ্ধে দপ্তরে নানা অভিযোগ আসছিল। বিভিন্ন দিক খতিয়ে দেখে এসএসসির মাথা থেকে সৌমিত্রবাবুকে ছেঁটে ফেলায় সায় দেয় সরকার।এদিকে, জানা গিয়েছে সৌমিত্রবাবু শিক্ষামন্ত্রীকে নিজের ইস্তফাপত্র পাঠিয়েছেন।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং