BREAKING NEWS

১৪ ফাল্গুন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

হনুমান চালিশা পাঠ করায় ইসরাত জাহানকে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: July 18, 2019 2:45 pm|    Updated: July 18, 2019 2:45 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হিজাব পরে হনুমান চালিশা পাঠ অনুষ্ঠানে যোগ। সেই ‘অপরাধে’ ভাড়াবাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ তুললেন বিজেপি নেত্রী ইসরাত জাহান। তিন তালাক আন্দোলনের মুখ ইসরাত জাহানকে হাওড়ার সালকিয়ার ভাড়াবাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। তাঁকে খুনের হুমকিও দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছেন বিজেপি নেত্রী। জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার হাওড়ায় হনুমান চালিশা পাঠ অনুষ্ঠানে হিজাব পরে গিয়েছিলেন তিনি। তারপরই নাকি তাঁর বাড়ির সামনে প্রচুর মুসলিম সম্প্রদায়ের লোকজন জড়ো হন। চাপে পড়ে নাকি বাড়ির মালিক সপরিবারে তাঁকে বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছেন বলে অভিযোগ।

জানা গিয়েছে, হাওড়ার জিটি রোডে রাস্তা আটকে প্রতি শুক্রবার নমাজ পড়ার বিরোধিতা করছে বিজেপি। তাই বিজেপির যুব মোর্চার হাওড়া শাখার সভাপতি ওমপ্রকাশ সিং জানিয়েছেন, তাঁরা ঠিক করেছেন প্রতি মঙ্গলবার করে যুব মোর্চার সদস্যরাও রাস্তায় বসে হনুমান চালিশা পাঠ করবেন। এই কর্মসূচিতেই যোগ দিয়েছিলেন ইসরাত। সেখানে বাকি অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে হনুমান চালিশা বই বিতরণ করছিলেন তিনি। এরপর তিনি বাড়ি ফিরতেই শুরু হয় হাঙ্গামা। অভিযোগ, প্রায় ১০০ জনের মতো স্থানীয় মুসলিম সম্প্রদায়ের লোকজন চড়াও হন তাঁর বাড়ির সামনে। হিজাব পরে হিন্দুদের ধর্মীয় কর্মসূচিতে কেন যোগ দিয়েছেন ইসরাত, তার জন্য বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। এটি ইসলাম বিরোধী কাজ। তারপর নাকি বাড়ির মালিক তাঁকে বাড়ি ছাড়তে বাধ্য করেন।

[আরও পড়ুন: সরকারি প্রকল্পের ঘর দখল করে তৃণমূলের পার্টি অফিস! শোরগোল বর্ধমানে]

এই ঘটনায় ইসরাত পুলিশের ভূমিকায় খুবই ক্ষুব্ধ। তিনি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে পুলিশ কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। তাঁকে খুনের হুমকি দেওয়া হচ্ছে। একমাত্র ছেলেকে নিয়ে তিনি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। তিনি জানিয়েছেন, হনুমান চালিশা পাঠ অত্যন্ত পবিত্র রীতি। হাওড়া পুলিশ সাধারণ মানুষকে ধর্মীয় রীতি পালনে বাধা দিতে পারে না। তিনি পুলিশের কাছে নিরাপত্তার দাবি জানিয়েছেন।

An Images
An Images
An Images An Images