BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘আগামী বছর ১৫ আগস্ট বাংলায় বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী থাকবে’, প্রত্যয়ী কৈলাস বিজয়বর্গীয়

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: August 16, 2020 10:01 pm|    Updated: August 16, 2020 10:01 pm

An Images

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: বাংলার পরিবর্তনের লড়াইয়ে প্রবাসী বাঙালিদেরও এগিয়ে আসার আহ্বান জানালেন বিজেপির সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক তথা এ রাজ্যে দলের পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়। শনিবার স্বাধীনতা দিবসের রাতে সারা বিশ্বে বিভিন্ন দেশে থাকা প্রবাসী বাঙালিদের সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আলোচনা সভায় মিলিত হন বিজয়বর্গীয় এবং বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেখানে কৈলাস প্রবাসী বাঙালিদের উদ্দেশে বলেন, “বাংলায় হিংসার রাজনীতি চলছে। বিদেশে বসে বাংলার পরিবর্তনের লড়াইয়ে আপনারা সাহায্য করুন। বাংলাকে বাঁচাতে হবে। আর বাংলাকে বাঁচাতে বিজেপির সরকার দরকার।” এদিন আলোচনা সভায় কৈলাস বলেন, “আগামী বছর মার্চেই পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা ভোট হবে।” রাজনৈতিক মহলে জল্পনা, তাহলে ২০২১-এর ভোট কি এক মাস এগিয়ে আসতে চলেছে? আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে তিনি এও বলেন, “আগামী বছর ১৫ আগস্ট যখন আবার এই আলোচনা সভা হবে তখন বাংলায় বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী থাকবে।”

রাজ্যে বিধানসভা ভোট যত এগিয়ে আসছে রাজনৈতিক তৎপরতা ততই বাড়াচ্ছে বিজেপি। বাংলায় বদলের লড়াইয়ে প্রবাসী বাঙালিদেরও পাশে চাইছে গেরুয়া শিবির। তাদের প্রচারে নামাতে চাইছে। স্বাধীনতা দিবসের দিন রাতে বিশ্বের ৩০টি দেশের ৫০টি শহরে থাকা প্রবাসী বাঙালিদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে মিলিত হন পশ্চিমবঙ্গের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় ও রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এই আলোচনা সভার আয়োজক ছিল এনআরআই ফর বেঙ্গল (প্রবাসী বাংলা)। বিশ্বব্যাপী প্রবাসী বাঙালিদের সঙ্গে এই মিটিং পরিচালনা করেন এনআরআই ফর বেঙ্গল-এর প্রতিষ্ঠাতা যুধাজিত সেন মজুমদার। কৈলাসের বক্তব্য, বিবেকানন্দ, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বাংলা আজ বোমা-বন্দুকের বাংলা হয়ে গিয়েছে। বেআইনি অনুপ্রবেশ হচ্ছে। জাল নোটের কারবার চলছে। বাংলায় এমন সরকার দরকার যে সরকার বাংলার ঐতিহ্য-সংস্কৃতিকে আবার ফিরিয়ে দেবে। রাজ্যের কল্যাণে কাজ করবে। সোনার বাংলা গড়ে উঠবে। এদিন বিজেপির এই শীর্ষ নেতা জানিয়ে দেন, দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বেই আগামী বিধানসভা ভোটে দল লড়বে। আলোচনায় দিলীপ ঘোষ বলেন, “বাংলায় বিজেপি কর্মীরা খুন হচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গের মুক্তির জন্য রক্ত দিতে হবে আমাদের। আমরা তার জন্য মন প্রস্তুত করেছি।” তাঁর কথায়, সারা দেশের উন্নয়নের সঙ্গে পা মিলিয়ে বাংলা চলবে এটাই সকলে চায়।

[আরও পড়ুন: ‘আঙ্কেলজি আপনার গুজরাটের বস নজরদারিতে সবচেয়ে ভাল’, রাজ্যপালকে খোঁচা মহুয়ার]

আয়োজকদের দাবি, এদিন একশোর বেশি প্রবাসী বাঙালি এই ভিডিও কনফারেন্সে অংশ নিয়েছিলেন। নিউ ইয়র্ক, টরেন্টো, সানফ্রান্সিস্কো, সিডনি, মেলবোর্ন, হংকং, কানাডা, নাইজেরিয়া-সহ আরও একাধিক দেশ ও বিশ্বের বিভিন্ন শহরে বসবাসকারী প্রবাসী বাঙালিরা অংশ নিয়ে ছিলেন। কৈলাস বিজয়বর্গীয়র সঙ্গে তাঁদের মত বিনিময়ও হয়। নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে ভারত আজ কীভাবে এগিয়ে চলেছে তার ব্যাখ্যা দেন বিজয়বর্গীয়। তিনি বলেন, “আজ আত্মবিশ্বাসে ভরা ভারত। মানুষ ভরসা করছে মোদিকে।” প্রবাসী বাঙালিদের অনেকের মত, কেন্দ্র ও রাজ্যে একই দলের সরকার হলে উন্নয়নের কাজে গতি আসে। তাই বিজেপির নেতৃত্বেই বাংলায় উন্নয়ন সম্ভব। মত গেরুয়া শিবিরের প্রবাসী বাঙালিদের এই মঞ্চের সদস্যদের।

[আরও পড়ুন: দিলীপের ‘স্বাধীন ভারত অমর রহে’ মন্তব্য যুক্তিপূর্ণ, কারণ ব্যাখ্যা করলেন রাজ্যপাল]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement