BREAKING NEWS

১৪ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৮ মে ২০২০ 

Advertisement

ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোতেও ভালবাসার ছবি, গোলাপ হাতে পার্টনারকে প্রেম নিবেদন যুবকের

Published by: Sulaya Singha |    Posted: February 14, 2020 2:14 pm|    Updated: February 14, 2020 2:43 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উইল ইউ বি মাই ভ্যালেন্টাইন? প্রেমদিবসে শহরের আনাচে-কানাচে কান পাতলে এ প্রশ্নই যেন শোনা যাচ্ছে। ১৪ ফেব্রুয়ারি আকাশে-বাতাসে ভালবাসার সুর। আর সেই সুরেই গা ভাসিয়েছেন প্রেমিকা-প্রেমিকারা। নতুন করে ভালবাসার সফর শুরু করতে কেউ আবার প্রেমিকাকে বলছেন, ‘শুধু একবার বলো, আমাকেই ভালবাসো…।’ ঠিক তেমনই এক দৃশ্য চোখে পড়ল ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোয়। যাত্রার প্রথম দিনই মেট্রোর মধ্যে পার্টনারকে প্রেম নিবেদন করলেন যুবক। যা এখন রীতিমতো টক অফ দ্য টাউন হয়ে উঠেছে।

১৩ ফেব্রুয়ারি উদ্বোধন হয়েছে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর। আর ভ্যালেন্টাইনস ডে-তে (Valentine’s Day) ছ’টি স্টেশনের মধ্যে শুরু হয়েছে সাধারণের মেট্রো যাত্রা। প্রথমদিনই যাত্রীদের গোলাপ উপহার দিয়েছে মেট্রো রেল। হাসি মুখে রেল যাত্রা করছেন যাত্রীরা। ছবি আর সেলফি তোলার হিড়িক মেট্রোয়। তবে তারই মধ্যে আলাদা করে নজর কাড়লেন এক যুগল। মেট্রোর একটি ফাঁকা কামরার মেঝেতে হাঁটু গেড়ে বসে হাতে গোলাপ নিয়ে প্রেমিকাকে ভালবাসার কথা জানালেন যুবক। প্রকাশ্যে এমন প্রেম নিবেদন হয়তো প্রত্যাশিত ছিল না। তাই খানিকটা লজ্জাই পেয়ে যান যুবতী। তবে পরক্ষণেই মুচকি হেসে বুঝিয়ে দিলেন প্রস্তাবে তিনি রাজি। সেই মিষ্টি মুহূর্তের ছবি ফেসবুকে পোস্ট করেছে খোদ মেট্রো রেলওয়ে। যা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া গদগদ। এরপরই দেখা যায়, মেট্রো সফরকে স্মরণীয় করে রাখতে সেলফি তুলছেন তাঁরা।

[আরও পড়ুন: পরকীয়া সন্দেহে স্ত্রী’র উপর অ্যাসিড হামলা, কসবা কাণ্ডে প্রকাশ্যে চাঞ্চল্যকর তথ্য]

metro-couple

ভ্যালেন্টাইনস ডে উপলক্ষে মেতে উঠেছে শহর। সল্টলেকের সেন্ট্রাল পার্ক, সিটি সেন্টার-সহ বিভিন্ন জায়গায় ভিড় লাভবার্ডসের। সল্টলেকের রেস্তরাঁগুলির বাইরেও লম্বা লাইন। অনেকে আবার সল্টলেক থেকে নিক্কো পার্ক, নিউটাউন, ইকো পার্কেও যাচ্ছেন সময় কাটাতে। তাই মেট্রো কর্তৃপক্ষের আশা, প্রথম দিনেই তাঁরা ভাল যাত্রী পাবেন। মেট্রো কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছিল, এদিন সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত ২০ মিনিট অন্তর চলবে এই মেট্রো। পরে যাত্রীর সংখ্যা বাড়লে রেকের সংখ্যা বৃদ্ধি করা হবে। পাশাপাশি কমিয়ে অন হবে দু’টি মেট্রো চলাচলের ব্যবধানও। প্ল্যাটফর্ম স্ক্রিন গার্ড, স্ক্যানার মেশিন, স্বয়ংক্রিয় টোকেন কাউন্টার, লিফ্ট সমেত অত্যাধুনিক ব্যবস্থা রয়েছে নয়া এই মেট্রো রুটে। ফলে এক দিকে যেমন নিরাপত্তা নিয়ে অনেকটাই নিশ্চিন্ত থাকতে পারবেন যাত্রীরা, তেমনই যাত্রাও হবে স্বচ্ছন্দ ও আরামদায়ক।

metro

[আরও পড়ুন: বিতর্কের মধ্যেই যাত্রা শুরু ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর, উদ্বোধন করলেন রেলমন্ত্রী]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement