BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

ঝুরো মাটি আর কোদাল দেখেই সন্দেহ পুলিশের, নিউ আলিপুরে মাটি খুঁড়ে উদ্ধার যুবকের দেহ

Published by: Sulaya Singha |    Posted: September 11, 2020 10:58 pm|    Updated: September 11, 2020 10:58 pm

An Images

ছবি: প্রতীকী

অর্ণব আইচ: বন্ধুকে খুন করে মাটিতে পুঁতে দিয়েছিল অভিযুক্ত। ঝুরো মাটি আর পাশে কোদাল দেখেই সন্দেহ হয় পুলিশের। শুক্রবার রাতে মাটি খুঁড়ে মৃত যুবকের দেহ বের করলেন দক্ষিণ কলকাতার নিউ আলিপুর থানার পুলিশ আধিকারিকরা। এই ঘটনায় দীপক দাস ওরফে বুড়ো নামে মৃত যুবকের এক সঙ্গীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। যে পুরনো বাড়ির উঠোনে দেহটি পুঁতে দেওয়া হয়েছিল, সেই বাড়ির কেয়ারটেকারকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে।

[আরও পড়ুন: নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ চত্বরে ১৯ ঘন্টা ঘুরে বেড়ালেন করোনা রোগী!]

পুলিশ জানিয়েছে, মৃত ব্যক্তির নাম বিপুল দত্ত ওরফে কালুয়া। বয়স ৩০। ওই যুবক পেশায় রিক্সাচালক। বৃহস্পতিবার সকালে তিনি বাড়ি থেকে বের হন। কিন্তু রাতে বাড়ি ফেরেননি। শুক্রবার সকাল এগারোটা নাগাদ নিউ আলিপুর থানায় মিসিং ডায়েরি করেন তাঁরা। পরিবারের লোকেরা পুলিশ তদন্ত শুরু করেন। দেখা যায়, মোবাইলে রিং হচ্ছে। মোবাইলের সূত্র ধরেই নিউ আলিপুরের ব্লক ও-এ পুলিশ তল্লাশি চালায়।

একটি পুরনো দোতলা বাড়ির উঠোনে গিয়ে পুলিশের সন্দেহ হয়। বোঝা যায়, মাটি কোপানো হয়েছে। পাশে রাখা আছে কোদাল। এরপরই তৎপরতার সঙ্গে মাটি খুঁড়ে বিপুলের দেহ উদ্ধার করা হয়। দেখা যায়, তাঁর কপালে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। বাড়ির কেয়ারটেকার দীপক দাসকে জেরা করতেই ভেঙে পড়ে সে। জানা যায়, বিপুল ও দীপক ওই বাড়িতে একসঙ্গে বসেই মদ্যপান করছিল। পুরনো কোনও বিষয় নিয়ে দু’জনের মধ্যে বচসা হয়। তারই জেরে দীপক বিপুলের মাথায় ইট দিয়ে আঘাত করে। তাতেই তাঁর মৃত্যু হয়। প্রমাণ লোপাটের জন্য সে তাঁর দেহটি মাটির তলায় পুঁতে রাখে। এদিন সন্ধেয় দীপককে গ্রেপ্তার করে জেরা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: ‘আপনার মতো আরও মানুষের প্রয়োজন’, আনন্দপুর কাণ্ডের সাহসিনীকে কুর্নিশ মিমির]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement